ইসরায়েলি সেনার গুলিতে নিহত ফিলিস্তিনি যুবক

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: ইসরায়েলি সৈন্যের গুলিতে এক ফিলিস্তিনি যুবক নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। পশ্চিম তীরে বিক্ষোভকারী নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ওপর গুলি চালালে ২০ বছর বয়সী এই যুবক প্রাণ হারান বলে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। নিহত যুবকের নাম মোহাম্মদ ফারিদ হাসান।

নাবলাস শহরের দক্ষিণাঞ্চলীয় একটি গ্রামে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়েছে ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী। এ সময় কুসরা গ্রামে নিজের বাড়ির ছাদে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন ২০ বছর বয়সী এই ফিলিস্তিনি যুবক। এছাড়া আরও দুইজন আহত হয়েছেন।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বসতি স্থাপণকারী ও ফিলিস্তিনিদের মধ্যে দ্বন্দ্ব নিরসনের চেষ্টা করার সময় একটি বাড়ির ছাদ থেকে বিস্ফোরক ডিভাইস ছুড়ে মারে ওই যুবক। তখন তারা পাল্টা গুলি ছুড়তে বাধ্য হয়।

গতকাল শনিবার ইসরায়েলি বাহিনী জানিয়েছে, গাজা উপত্যকায় হামাসের একটি রকেট লঞ্চার এবং অস্ত্র কারখানায় বিমান হামলা চালিয়েছে তারা। এতে এক ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন।

এর আগে শুক্রবার জুমার নামাজের পর নাবলুস শহরের কাছে বেইতা শহরের উপকণ্ঠে অবস্থিত অবৈধ ইহুদি বসতি ‘এভিয়াটার’-উচ্ছেদের দাবিতে বিক্ষোভরত ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা চালায় ইসরায়েলি সেনারা। এ সময় অন্তত ১৫০ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন।

সম্প্রতি যুদ্ধ বিরতি চুক্তির মাধ্যমে দীর্ঘ ১১ দিনের যুদ্ধের সমাপ্তি ঘটে এবং এর পরে পরেই চুক্তি লঙ্ঘন করে একের পর এক আক্রমণ করছে ইসরায়েল নিরীহ ফিলিস্তিন দের উপর।