বলিউড থেকে বিদায় নিয়ে গুজরাট নিবাসী মৌলানা মুফতি অনসের সঙ্গে বিয়ে করলেন সানা খান

ছবি সৌজন্যে ইনস্ট্যান্ট বলিউডের ইনস্টাগ্রাম পেজ।

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট লিখে বলিউড থেকে বিদায় নিয়ে ধর্মের পথ অবলম্বন করে চলার কথা জানান সালমান খানের কোস্টার এবং বিগবসের রানারআপ সানা খান। তার এই সিদ্ধান্ত নিয়ে ইতিমধ্যেই তোলপাড় হয়েছে বলিউড। এর মধ্যেই ফের একবার সবাইকে হতবাক করে দিলেন বলিউড অভিনেত্রী সানা খান। গুজরাট নিবাসী মৌলানা মুফতি অনসের সঙ্গে বিয়ে করলেন সানা খান। তার এই বিবাহ বন্ধনের ভিডিও ইতিমধ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। একের পর এক শুভেচ্ছা বার্তায় ভরে উঠেছে টুইটার, ইনস্টাগ্রাম।

সানা খানের বিয়ের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব দ্রুত ভাইরাল হয়ে চলেছে। ওই ভিডিওতে সানা খান এবং মৌলানা মুফতি অনস সাদা রঙের পোশাক পরে রয়েছেন। ভিডিওতে সানা খানকে কেক কাটতেও দেখা গেছে। বিয়ের পোশাকে সুন্দরভাবে সেজে উঠেছেন বলিউড অভিনেত্রী সানা খান।

সম্প্রতি, একটি বড়সড় ইনস্টাগ্রাম পোস্ট করে বলিউডকে চিরতরে বিদায় জানিয়ে কোরানের নির্দেশ অনুসারে অর্থাৎ আল্লাহতাআলার নির্দেশ অনুসারে জীবন অতিবাহিত করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন তিনি। ওই চিঠিতে তিনি তার অনুগামীদের, বন্ধুদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন এতদিন তাকে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে সহযোগিতা করার জন্য, তাকে সম্মান দেওয়ার জন্য। তিনি বলেছেন, বলিউডে কাজ করে তিনি যথেষ্ট সম্মান এবং অর্থ উপার্জন করেছেন। কিন্তু অর্থ উপার্জনই কি মানুষের একমাত্র কাজ? নাকি মানুষের দায়িত্ব আশ্রয়হীন অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো?

নিজের ইনস্টাগ্রাম পোস্টে সানা লিখেছেন মৃত্যু পরবর্তী জীবন তার কেমন হবে সে প্রশ্নের উত্তর তিনি বহু বছর ধরে খুঁজছেন। যার জবাব তিনি পাননি। তাই এবার তিনি ইসলামের হাত ধরে সেই জবাব খুঁজতে অগ্রসর হয়েছেন। তিনি জানতে পেরেছেন মানুষের জীবন আসলে মৃত্যু পরবর্তী জীবনকে সুখকর বানানোর উপায় মাত্র। তাই এই জীবনে তার জন্মদাতার পথনির্দেশিকা অনুসারে চলা উচিত। জন্মদাতার প্রতিটি আজ্ঞা পালন করা উচিত। তাই সেই লক্ষ্যেই বলিউডকে সম্পূর্ণ বিদায় জানিয়ে জন্মদাতার আজ্ঞা অনুযায়ী জীবন অতিবাহিত করতে বদ্ধপরিকর তিনি। নিজের ইনস্টাগ্রাম পোষ্টের পরিশেষে তিনি তার বন্ধুদের এবং সহকর্মীদের উদ্দেশ্যে অনুরোধ করেছেন যাতে তাকে আর বলিউডে কাজ করার জন্য আমন্ত্রণ করা না হয়।