বাংলায় দুর্দশার শিকার কৃষকরা, একুশের ভোটে জবাব পাবে তৃণমূল; হেস্টিংসে এসে জানালেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: বাংলায় দুর্দশার শিকার কৃষকরা, একুশের ভোটে জবাব পাবে তৃণমূল। হেস্টিংসে দলের নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসেরাজ্যের শাসক দল তৃণমূল এর ওপর এভাবেই আক্রমণ করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। তাঁর অভিযোগ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অসহিষ্ণুতার কথা বলেন। শুধু তাই নয় তার আমলে বিরোধী নেতাকর্মীরা খুন হন বলেও অভিযোগ করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। এদিকে হেস্টিংস পৌঁছতেই কেন্দ্রের নোয়া কৃষি আইনের প্রত্যাহারের দাবিতে নাড্ডাকে ঘিরে ধরেন কালো পতাকাধারী বিক্ষোভকারীরা।

আজ থেকে দুদিনের বাংলার সফরের শুরুতে এদিন ওই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসে জেপি নাড্ডা বলেন, শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় সহিষ্ণুতার কথা বলতেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অসহিষ্ণুতার কথা বলেন। মমতার শাসনকালে খুন হচ্ছেন বিরোধী দলের নেতা-কর্মী-সমর্থকরা। শুধু তাই নয় রাজনীতির সঙ্গে পরিবার তন্ত্রের প্রসঙ্গ টেনে এনে নাড্ডা বলেন, সমস্ত রাজনৈতিক দলে পরিবারই দল আর বিজেপির কাছে দলই পরিবার।

এর পাশাপশি দেশে লাগাতার চলতে থাকা কৃষক আন্দোলন প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে ফের একবার কৃষক আন্দোলনের জন্য বিরোধীদের দোষারোপ করে নাড্ডা বলেন, কৃষি আইন নিয়ে বিরোধীরা ভুল বোঝাচ্ছেন কৃষকদের। তাঁর পাল্টা দাবি, কৃষকদের আশীর্বাদ আছে বলেই সম্প্রতি সব নির্বাচনে জয় এসেছে। এমনকি কৃষক আন্দোলন প্রসঙ্গে বাংলার শাসক দল তৃণমূলকেও আক্রমণ করেন নাড্ডা। তাঁর দাবি, বাংলাতে দুর্দশার শিকার হচ্ছেন কৃষকরা। এর জবাব ২০২১-এ পাবে তৃণমূল। বিজেপি দুশোর বেশি আসন নিয়ে জিতবে বাংলায়। তিনি আরো বলেন, মমতা সরকারকে উৎখাত করবে বিজেপি। করোনাকালে বিনামূল্যের আসনের ব্যবস্থা করেছে মোদি সরকার।