হোমের মেয়েদের বলপূর্বক ধর্মান্তকরণ? দায়ের এফআইআর

প্রতীকী ছবি

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : জোর করে ধর্মান্তকরণের অভিযোগ উঠল মিশনারিজ অফ চ্যারিটির বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগে মোদির রাজ্য গুজরাতে ভাদোদরা শেল্টার হোমের বিরুদ্ধে মাকারপুরা থানায় এফআইআর দায়ের হয়। হোমের পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে মাদার টেরেজার সংস্থা। অভিযোগ অস্বীকার করেছে হোম কর্তৃপক্ষ।

ঠিক কী হয়েছে ঘটনাটি? জেলা সামাজিক সুরক্ষা আধিকারিক মায়াঙ্ক ত্রিবেদী এবং শিশু কল্যাণ কমিটির চেয়ারম্যান কয়েকদিন আগে ওই হোমে গিয়েছিলেন। ত্রিবেদীর অভিযোগ, আবাসিক মেয়েদের সেখানে জোর করে ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে। তাদের খ্রিস্টান রীতি অনুযায়ী ধর্মীয় বই পড়তে হয়। প্রার্থনাতে অংশ নিতে হয়। গলায় ক্রস পরিয়ে দেওয়া হয়। তারপর মেয়েদের ঘরে বাইবেল রেখে সেটা পড়তে বাধ্য করা হয়। সেই অভিযোগে ফ্রিডম অফ রিলিজিয়ন আইন ২০০৩ অনুযায়ী অল্পবয়সি মেয়েদের খ্রিষ্টানধর্মে ধর্মান্তরিত করা এবং হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগে মামলা দায়ের হয়।

অভিযোগ অস্বীকার করেছে মিশনারিজ অফ চ্যারিটি কর্তৃপক্ষ। তাদের বক্তব্য, “এই ধরনের কোনও কার্যকলাপের সঙ্গে আমরা যুক্ত নই। এখানে ২৪টি মেয়ে রয়েছে। আমাদের এখানে থাকেন এবং এখানকার রীতি মেনে চলেন। আমরা সারাদিন যা করি এরা তাই করেন। এদের মোটেই ধর্মান্তরিত করা হয়নি।” পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে।