নকল রসিদে ঘুষ দিয়ে যুদ্ধবিমান বিক্রির বরাত হাসিল করে দাসো, রিপোর্ট ফাঁস ফরাসি পোর্টালের

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : নকল রসিদে ঘুষ দিয়ে ভারতকে রাফাল যুদ্ধবিমান বিক্রির বরাত পেয়েছিল দাসো। এরজন্য মধ্যস্থতাকারীকে ঘুষ দেওয়া হয়েছিল প্রায় ৭৫ লাখ টাকা। চাঞ্চল্যকর এমনই দাবি ফরাসি পোর্টাল ‘মিডিয়াপার্ট’ এর।

মধ্যস্থতাকারী সুষেন গুপ্তাকে নকল রশিদ দেওয়া হয়েছিল, ওই পোর্টাল তা প্রকাশ করে। মিডিয়াপার্ট-এর দাবি, ২০১৮ এর অক্টোবর থেকে এই নকল রসিদের তথ্যপ্রমাণ সিবিআই এবং ইডির কাছে ছিল। কিন্তু তারপরও দুর্নীতি নিয়ে তদন্ত চালাতে রাজি হয়নি তারা। মরিসাসে ইন্টারস্টেলার টেকনোলজিস নামে ওই মধ্যস্থতাকারীর একটি ভুয়ো সংস্থা রয়েছে। অগস্টা চুক্তি নিয়ে তদন্ত শুরু হতেই সেই সংস্থা তাদের যাবতীয় কাগজপত্র সিবিআই এবং ইডির হাতে তুলে দেয়। মিডিয়াপার্ট এর দাবি, নথির মধ্যে রাফাল চুক্তির নকল রসিদও ছিল। নথি অনুযায়ী রাফাল চুক্তি রসিদে ঘুষের লেনদেন ২০০৭-২০১২ এর মধ্যে হয়েছিল। সেই সময় ইউপিএ সরকার ক্ষমতায়।

প্রসঙ্গত, ইউপিএ সরকার ১২৬ টি রাফাল যুদ্ধবিমান কেনা নিয়ে দাসোর সঙ্গে আলোচনা চালালেও চুক্তি হয়নি। এরপর এনডিএ সরকারের সঙ্গে ফরাসি সংস্থার ৩৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান কেনার চুক্তি হয়। কংগ্রেসের অভিযোগ, দাসোর থেকে ৫২৬ কোটি টাকায় যুদ্ধবিমান কেনার কথা হয়। কিন্তু মোদি সরকার সেই যুদ্ধবিমান ১৬৭০ কোটি টাকা দিয়ে কিনেছে। এই রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসতেই মুখ খুলেছে বিরোধীরা। তৃণমূল কংগ্রেসের সহ-সভাপতি যশবন্ত সিনহা বলেন, রাফাল দুর্নীতিতে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করে সিবিআই তদন্ত দাবি করেছিলাম। তা খারিজ হয়। এখন মিডিয়াপার্ট দেখিয়ে দিল, কীভাবে নকল রসিদে লেনদেন হয়েছে।