‘অক্সিজেন সরবরাহে কেউ বাধা দিলে ফাঁসি দেব’ : দিল্লি হাইকোর্ট

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : করোনাভাইরাস রোগীদের অক্সিজেন সরবরাহে গাফিলতি দেখলে কেন্দ্র, রাজ্য বা স্থানীয় স্তরের কোনো আমলাকেই ছেড়ে কথা বলা হবে না জানাল বলে দিল্লি হাইকোর্ট। করোনা রোগীদের অক্সিজেনের ঘাটতি নিয়ে দিল্লির একটি বেসরকারি হাসপাতালের করা আবেদনের শুনানিতে বিচারপতি বিপিন সংঘী ও বিচারপতি রেখা পল্লির বেঞ্চ এ কথা বলেন। প্রয়োজনে তাকে ফাঁসিতে ঝোলানো হবে বলেও শনিবার হুশিয়ারি দিল আদালত।

পাশাপাশি দিল্লি সরকার গত কয়েকদিন ধরে প্রতিদিন মাত্র ৩৮০ টন অক্সিজেন পাচ্ছে এবং শুক্রবারে ৩০০ টন পাওয়া গেছে বলে হাইকোর্টকে জানালে, দিল্লিতে প্রতিদিনের জন্য বরাদ্দ করা ৪৮০ টন অক্সিজেন কখন থেকে সরবরাহ করা হবে, তা স্পষ্ট করে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে তাও জানতে চাই হাইকোর্ট।

দেশে কোভিড সংক্রমণের দ্বিতীয় তরঙ্গকে ‘সুনামি’ আখ্যা দিয়ে দিল্লি হাইকোর্ট একটি মামলার পর্যবেক্ষণে জানায়, হাসপাতালগুলিতে অক্সিজেন সরবরাহ পর্যাপ্ত পরিমাণে হচ্ছে না। সেই সরবরাহে ব্যাঘাত ঘটানো হলে কেন্দ্রীয় বা রাজ্য সরকারি কর্মী অথবা স্থানীয় প্রশাসনের কোনো কর্তাব্যক্তিকেই ছেড়ে কথা বলা হবে না।

গত দুদিনে দিল্লিতে দুটি হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে অন্তত ৪৫ জন কোভিড রোগীর মৃত্যু হছে। রোগীদের বাঁচাতে দেশটির হাসপাতালগুলো সরকারের কাছে অক্সিজেন চেয়ে আবেদন করেছে। এমন পরিস্থিতিতে দিল্লি হাইকোর্ট আজ এ হুশিয়ারি দিল।