HighlightNewsদেশ

২৬/১১-এর পর আরও কড়া জবাব দেওয়া উচিত ছিল ভারতের, মণীশ তিওয়ারির মন্তব্যে অস্বস্তিতে কংগ্রেস

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : কংগ্রেস নেতা সলমন খুরশিদের বই নিয়ে এখনও বিতর্ক চলছে। সেই বিতর্ক থামার আগেই কংগ্রেস সাংসদ মণীশ তিওয়ারির বই সমালোচনার ভরকেন্দ্রে। ওই বইকে ঘিরে তীব্র অস্বস্তিতে কংগ্রেস নেতৃত্ব। আর সুযোগকে কাজে লাগিয়ে কংগ্রেসকে আক্রমণ করতে মাঠে নেমে পড়েছে বিজেপি নেতৃত্ব।

সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে মণীশ তিওয়ারির লেখা, টেন ফ্ল্যাশপয়েন্ট, টুয়েন্টি ইয়ার্স’ নামে একটি বই। সেখানে সাংসদের দাবি, ২৬/১১ এর হামলার পর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আরও কড়া পদক্ষেপ করা উচিত ছিল তৎকালীন ইউপিএ সরকারের। এই মন্তব্যকে হাতিয়ার করে বিজেপির দাবি, এটা কংগ্রেসের ব্যর্থতার স্বীকারোক্তি। তবে বিজেপির এই সমালোচনার জবাব দিয়েছেন মণীশ। তার বক্তব্য, “৩০৪ পাতার বইয়ের একটা সারাংশ দেখে বিজেপি যা প্রতিক্রিয়া দিচ্ছে, তা দেখে আমি অবাক। বিজেপি সরকারের জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত ব্যর্থতার এমন সমালোচনা করা হলেও তারা একই রকম প্রতিক্রিয়া দেখাবে তো?”

মণীশ তিওয়ারি কংগ্রেসের বিক্ষুব্ধ জি-২৩ গোষ্ঠীর সদস্য। তার ওপর ইউপিএ সরকারের এই সমালোচনায় বেজায় খুশি বিজেপি। শেহজাদ পুনাওয়ালা নামে দলের এক নেতা বলেন, হিন্দুত্ব, ৩৭০ ধারা, সার্জিক্যাল স্ট্রাইক প্রতিটি বিষয়েই রাহুল গান্ধি এবং কংগ্রেস পাকিস্তানের সুরে কথা বলেন। ২৬/১১ এর ১৩ তম বর্ষপূর্তির দিকে এগোচ্ছি। এখন অন্তত কংগ্রেস বলুক, পুলওয়ামা, উরি হামলার পর যেমন কড়া জবাব দেওয়া হয়েছিল ২৬/১১- এর পর তেমন কিছুই করা হয়নি কেন? তবে কংগ্রেস সংসদের বিতর্কিত ওই মন্তব্যের পর কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি কংগ্রেস শিবির। সামনেই পাঁচ রাজ্যের ভোট। এরপর ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচন। এই পরিস্থিতিতে প্রথমে খুরশিদের মন্তব্য। যেখানে তিনি হিন্দুত্বকে ইসলামিক জঙ্গিদের সঙ্গে তুলনা করেছেন। যা নিয়ে প্রশ্ন করেছিলেন স্বয়ং কংগ্রেসের গুলাম নবি আজাদ। এরপর মণীশ তিওয়ারির বিতর্কিত মন্তব্য, যা কংগ্রেস শিবিরকে চাপে ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।

Related Articles

Back to top button
error: