অরুণাচলের অপহৃত কিশোরকে অমানবিক অত্যাচার, সরব বিজেপি সাংসদ

প্রতীকী ছবি

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : চিনা সেনার হাতে অপহৃত কিশোরকে অমানবিক অত্যাচার। কখনও পিঠে বারবার লাথি, ইলেকট্রিক শক এমনকী শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয় তাকে। এই নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুলেছেন অরুণাচলের বিজেপি সাংসদ তাপির গাও।

সাংসদের দাবি, ভারতীয় ভূখণ্ড থেকে অপহরণের পর চিনা সেনা মিরামকে অজ্ঞাত জায়গায় নিয়ে গিয়ে প্রচন্ড অত্যাচার করে। তিনি বলেন, “মিরামকে ব্যাপক মারধর করা হয়েছে। বৈদ্যুতিক শক দেওয়া হয়েছে। বিষয়টির গুরুত্ব উপলব্ধি করে ভারত সরকারকে অবিলম্বে পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করছি।” সাংসদের ব্যাখ্যা কেন এই কিশোরের অপহরণের ঘটনা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। তার মতে, এই ঘটনাটি শুধুমাত্র একটি কিশোরের অপহরণের ঘটনার মধ্যে দিয়ে বিচার করলে ভুল হবে। আমাদের রাজ্যের সঙ্গে যুক্ত আন্তর্জাতিক সীমান্তবর্তী অঞ্চলে গভীর জঙ্গল আছে। চিনা সেনা প্রায়ই এই এলাকায় অনধিকার প্রবেশ করে। আমাদের দেশের যেসব নাগরিকরা গাছগাছালি তুলতে বা শিকার করতে জঙ্গলে যায়, চিনা সেনারা তাদের হুমকি দেয়। অপহরণ করে থাকে। যতদিন না পর্যন্ত আন্তর্জাতিক সীমানার সুনির্দিষ্ট চিহ্নিতকরণ করা যাবে, ততদিন এই ধরনের ঘটনা বন্ধ করা যাবে না।”

সংসদের বাজেট অধিবেশনের মধ্যে চিনা আগ্রাসন নিয়ে বিরোধীদের হাতে নতুন অস্ত্র তুলে দিয়েছেন খোদ বিজেপি সাংসদই।