Jagdeep Dhankhar: হাওড়া পুরসভা ভোট নিয়ে আবারো সংঘাতের পথে রাজ্যপাল-রাজ্য সরকার!

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : হাওড়া পুরসভা ভোট নিয়ে আবারো কি রাজ্যপাল-রাজ্য সরকার সংঘাতে জড়াতে চলেছেন, এমনই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে বাংলার রাজনৈতিক মহলে। কারণ হাওড়া পুরসভা (সংশোধনী) বিলে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় স্বাক্ষর করেননি বলেই জানা গিয়েছে। সদ্যসমাপ্ত বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনে পাশ হয়েছে হাওড়া পুরসভা (সংশোধনী) বিল ২০২১। সোমবারই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা থেকে হাওড়া পুরসভা সংশোধনী বিল সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য রাজভবনে চেয়ে পাঠান। অন্যদিকে স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ওই দিনই রাজ্যপালের কাছে যাবতীয় তথ্য পাঠানো হয়েছে। আইন অনুযায়ী ওই বিল খতিয়ে দেখে রাজ্যপাল তাতে স্বাক্ষর করলে তবেই সেটি আইনে পরিণত হবে। আর তার পরই হাওড়া পুরসভা নির্বাচনের পথ প্রশস্ত হবে। ফলে যত ক্ষণ না তিনি এই বিলে অনুমোদন দিয়ে স্বাক্ষর করছেন, তত ক্ষণ হাওড়ায় পুরভোট আইনের ফাঁকে জড়িয়েই থাকছে। তাই এই সংক্রান্ত বিষয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে নির্বাচন কমিশনও রাজ্যপালের অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। ফলে পুরভোটের বিজ্ঞপ্তি জারি করা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে।

প্রসঙ্গত, টুইটে রাজ্যপাল ধনখড় জানিয়েছেন, মঙ্গলবারই রাজ্য নির্বাচন কমিশনারকে রাজভবনে ডেকে পাঠিয়েছেন তিনি। আসন্ন পুরভোট নিয়ে আলোচনার জন্যই ডেকে পাঠানো হয়েছে রাজ্যের নির্বাচন কমিশনারকে। সৌরভ দাস হলেন বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য নির্বাচন কমিশনার। মঙ্গলবারই তিনি রাজভবনে যাবেন বলে শোনা যাচ্ছে। সূত্রের খবর, রাজ্যের আসন্ন পুরভোটের প্রস্তুতি সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রশ্ন করবেন রাজ্যপাল। আর সেই জন্যই তিনি ডেকে পাঠিয়েছেন কমিশনারকে। সেই সঙ্গে সংবিধানের দু’টি ধারার কথা সোমবারের টুইটে উল্লেখ করেন ধনখড়। ‘২৪৩ কে’ এবং ‘২৪৩ জেডএ’— সংবিধানের এই দু’টি ধারাতে রয়েছে পুরভোট সম্পর্কিত সাংবিধানিক নির্দেশ। এখনও পর্যন্ত যা পরিস্থিতি, রাজ্যপাল সই না করলে ভোটের বিজ্ঞপ্তি জারি হওয়ার সম্ভাবনা কম।