দেশ

নূর জাহানারা স্মৃতি হাইমাদ্রাসাকে ১০ লক্ষ টাকা দিলেন সাংসদ খলিলুর রহমান

নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: পিছিয়ে পড়া এলাকায় প্রতিষ্ঠিত মুর্শিদাবাদের ফরাক্কার নূর জাহানারা স্মৃতি হাই মাদ্রাসার খেলার মাঠ তৈরির জন্য জমি ক্রয় করতে ১০ লক্ষ টাকা দিলেন জঙ্গিপুরের সাংসদ খলিলুর রহমান। বুধবার নূর জাহানারা স্মৃতি হাই মাদ্রাসার প্ৰধান শিক্ষক জানে আলমের হাতে চেক তুলে দেন তিনি। মূলত মাদ্রাসার জন্য পার্শ্ববর্তী এলাকায় তিন বিঘা জমি কিনতে আনুমানিক সত্তর লক্ষ টাকা খরচ হবে। এই সত্তর লক্ষ চাঁদার মাধ্যমেই উঠানোর বন্দোবস্ত করছেন প্রধান শিক্ষক। সেই কর্মসূচিতেই অনুদান দিলেন সাংসদ খলিলুর রহমান।

পরে সাংসদ খলিলুর রহমান বলেন, জানে আলম শুধু প্রধান শিক্ষক নন সমাজ ও দেশ গঠনে শিক্ষাক্ষেত্রে নতুন নতূন ভাবনায় তার জুড়ি মেলা ভার। বিদ্যালয়ের শিশু ঝরে পড়া রোধে শিক্ষার্থীদের সন্ধানে ঘরে ঘরে অনুসন্ধান, বাল্যবিবাহ রোধ, স্বাস্থ্য সচেতনতা এবং এলাকায় শান্তি প্রতিষ্ঠায় তাঁর আন্তরিক প্রচেষ্টা সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। তিনি এখন নারী শিক্ষার উন্নয়ন এবং শিশু ও যুবকদের জন্য একটি খেলার মাঠের জন্য জমি কিনে একটি ছাত্রী নিবাস নির্মাণ করতে চান। মহেশপুর অঞ্চলটি সত্যই পিছিয়ে ছিল। আগে আমরা এখানে দুটি জমি অনুদান দিয়েছিলাম। মায়ের স্মৃতিতে নবনির্মিত এই মাদ্রাসাটি আমাদের কাছে কেবল একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নয়, একটি স্মৃতিসৌধ হিসাবেও দেখছি। আমরা এই মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষকের কাজ নিয়ে সন্তুষ্ট। এলাকার জনস্বার্থে তার প্রকল্পটিকে ফলপ্রসূ করতে আমি নূর পরিবারের ব্যক্তিগত সম্পত্তি থেকে এক মিলিয়ন টাকার চেক দান করলাম।
আমি ভবিষ্যতে আরও কিছু করতে চাই খেলার মাঠ এবং হোস্টেল নির্মাণ নিঃসন্দেহে পরবর্তী প্রজন্মকে আরও বেশি শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও সংস্কৃতি-মানসিকতার বিকাশে সহায়তা করবে এই প্রত্যাশা।

প্রধান শিক্ষক জানে আলম জানান, খলিলুর রহমান অসাধারণ একজন উদার ও দানশীল মানুষ। আমরা গার্লস হোস্টেল ও খেলার মাঠের জন্য একটি তিন বিঘা জমি নিচ্ছি। যার আনুমানিক মূল্য সত্তর লক্ষ টাকা। সেই সুবাদেই নূর পরিবার মাদ্রাসাকে দশ লক্ষ টাকার চেক প্রদান করলেন। আমরা তাঁর স্নেহ এবং আশীর্বাদে ধন্য। জনকল্যাণে এই পরিবারের আরও অনেক অবদান রয়েছে জনকল্যাণে সরকারী খাতে বেসরকারী সম্পত্তি স্বেচ্ছাসেবী দান অত্যন্ত ব্যতিক্রমী এবং প্রশংসনীয় কাজে নূর পরিবারের দৃষ্টান্ত নজির বিহীন।

 

Related Articles

Back to top button
error: