টিডিএন বাংলা ডেস্ক: বর্ণবাদের বিরুদ্ধে উত্তাল আন্দোলন চলছে আমেরিকায়। অতীতের স্মৃতি ধরে রাখার নানা প্রয়াস দেখা যাচ্ছে। ওই দেশের এক শ্বেতাঙ্গ পুলিশ ৮ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড সময় ধরে জর্জ ফ্লয়েডের ঘাড়ে হাঁটু চেপে রেখে তাকে হত্যা করেছিল। বৃহস্পতিবার তাই ফ্লয়েডের জন্য আয়োজিত স্মরণসভায় পালন করা হয় আট মিনিট ৪৬ সেকেন্ড নীরবতা। ৪ জুন মিনিয়াপলিসে নর্থ সেন্ট্রাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত ওই সভায় ফ্লয়েডের আইনজীবী বেঞ্জামিন ক্রাম্প মন্তব্য করেন, ‘বিশ্ব ব্যাপী ছড়িয়ে পড়া বর্ণবাদজনিত মহামারি’র বলি হয়েছেন তার মক্কেল। ফ্লয়েডের স্মরণসভায় শত শত মানুষ সমবেত হয়।
স্মরণ সভা অনুষ্ঠানে শোকস্তুতি পাঠ করে শোনান নাগরিক অধিকার আন্দোলনের কর্মী রেভ আল শার্পটন। আবেগঘন কণ্ঠে তিনি বলেন, ফ্লয়েডের এ ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের সকল কৃষ্ণাঙ্গকেই প্রতিধ্বনিত করছে। তিনি বলেন, ‘ফ্লয়েডের সঙ্গে যা হয়েছে তা এদেশে প্রতিদিন শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবাসহ আমেরিকান জীবনের প্রত্যেক ক্ষেত্রেই ঘটে।’ তার আরও মন্তব্য,“উঠে দাঁড়ানোর সময় এখন। ‘আমাদের ঘাড় থেকে আপনাদের হাঁটু সরান’ এ কথাটি বলার সময় এখন।” গোটা বিচার ব্যবস্থায় পরিবর্তন না আসা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে জানান শার্পটন।
স্মরণ অনুষ্ঠানে ফ্লয়েডের পরিবারের সদস্য, মিনেসোটা গভর্নর টিম ওয়ালজ, মিনেসোটা সিনেটর অ্যামি ক্লোবুচার ও মিনিয়াপলিস মেয়র জ্যাকব ফ্রে উপস্থিত ছিলেন। খবরে প্রকাশ, শনিবার ফ্লয়েডের জন্মস্থান নর্থ ক্যারোলিনায় এবং সোমবার নিজ শহর হাউস্টনে স্মরণ অনুষ্ঠান হবে।