টিডিএন বাংলা ডেস্ক: পুলিশ হেফাজতে থাকাকালীনই কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যু নিয়ে বিক্ষোভে অগ্নিগর্ভ আমেরিকা। তার জেরে হোয়াইট হাউজকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাল বিক্ষোভকারীরা। কিন্তু বিক্ষোভ চলাকালীন একঘণ্টারও বেশি সময় মাটির তলায় লুকিয়ে থাকলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প! আর এই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে আন্তর্জাতিক মহলে, তবে কি ভয় পেলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প? মানুষের রোষ থেকে বাঁচতেই কি তাঁকে আশ্রয় নিতে হলো হোয়াইট হাউজের মাটির তলায়?

জানাগেছে, ওয়াশিংটন ডিসিতে শুক্রবার রাতে হোয়াইট হাউজের বাইরে বিক্ষোভকারীরা উপস্থিত হওয়ার পর যখন পরিস্থিতি ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে, তখনই নাকি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সুরক্ষায় তাঁকে হোয়াইট হাউজের আন্ডারগ্রাউন্ড বাঙ্কারে নিয়ে যাওয়া হয়। এই সংবাদ জানিয়েছেন দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস এক ব্যক্তি। আরও জানা গেছে, ওই বাঙ্কার থেকে তাঁকে ওপরে তোলার পরেও নাকি বেশ আতঙ্কেই ছিলেন মার্কিন সর্বেসর্বা। প্রায় ঘণ্টাখানেক মাটির তলায় ঘাপটি মেরে থাকতে হয় ডোনাল্ড ট্রাম্পকে।

শুক্রবার রাতে হোয়াইট হাউজের বাইরে যেভাবে মানুষের বিক্ষোভ আছড়ে পড়ে তা দেখে রীতিমতো ঘাবড়ে যান ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর সঙ্গীসাথীরা। অবস্থা বেগতিক দেখে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে মাটির তলার আস্তানায় পাঠিয়ে দেওয়া হলেও মেলানিয়া ট্রাম্প এবং ব্যারন ট্রাম্পকেও তাঁর সঙ্গে সেখানে পাঠানো হয়েছিল কিনা তা এখনও অস্পষ্ট।