টিডিএন বাংলা ডেস্ক : দায়িত্ব নিয়েই একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্য করে সমালোচিত ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবকে ডেকে পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সূত্রের খবর, আগামী ২ মে দিল্লিতে নরেন্দ্র মোদী ও বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন।
টানা ২৫ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা সিপিআইএম নেতৃত্বাধীন বামফ্রন্টকে পরাজিত করে রাজ্যে ক্ষমতার দখল নিয়েছে বিজেপি। এর পরই তরুণ বিপ্লব দেব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমতা পান।
মুখ্যমন্ত্রী ক্ষমতায় বসার কয়েকদিন পরই বিতর্কিত মন্তব্য করে সমালোচিত হন।
গত ১৮ এপ্রিল এক অনুষ্ঠানে বিপ্লব দেব বলেন, ‘অনেকে হয়তো এটা বিশ্বাস করতে চাইবেন না, কিন্ত কয়েক লাখ বছর আগে ভারতেই ইন্টারনেট আবিস্কার হয়েছিল।’ বিপ্লব দেব তাঁর যুক্তিতে বলেন, ইন্টারনেট না থাকলে  মহাভারতের কাহিনী অনুযায়ী অন্ধ রাজা ধৃতরাষ্ট্র তাঁর রাজপ্রাসাদে বসে কী করে কুরুক্ষেত্রে যুদ্ধের বিস্তারিত তথ্য সঞ্জয়ের চোখ দিয়ে দেখেছিলেন? তার মানে কোনও একটা প্রযুক্তি ওই সময়ে কাজ করতো। যে কারণে  ইন্টারনেট ও স্যাটেলাইট যোগাযোগ সেই সময় ছিল বলেই মনে হয় আমার।’
এর এক সপ্তাহ পরেই বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতা নিয়ে মন্তব্য করে ফের সংবাদ-শিরোনামে আসেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী। গত ২৬ এপ্রিল তিনি বলেন, ‘ডায়ানা হেডেন কী করে বিশ্বসুন্দরী হলেন? ডায়ানা হেডেনের সৌন্দর্যের মাথামুণ্ডু আমি বুঝি না।’ বিপ্লব দেব আরো বলেন, ‘পূর্ব নির্ধারিত সবকিছু মেনেই বিশ্ব সুন্দরীর মুকুট কারো মাথায় পরিয়ে দেওয়া হয়। তা না হলে ডায়ানা হেডেন বিশ্বসুন্দরীর মুকুট জিততে পারতেন কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন আসে।’
সর্বশেষ রবিবার ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী তরুণদের সরকারি চাকরির পেছনে না ছুটে পান-বিড়ির দোকান খুলে বসার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, নিজেদের অমূল্য সময় নষ্ট করে সরকারি চাকরির জন্য বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের পেছনে না ছুটে, অন্যভাবে পয়সা রোজগারের চিন্তা করা উচিত। সরকারি চাকরির বিকল্প হিসেবে তিনি তরুণ প্রজন্মকে পরামর্শ দিয়ে বলেন, ‘পানের দোকান খুলুন কিংবা গরু কিনে দুধ দুইয়ে রোজগার করুন। তাতে বছরে একজন ১০ লাখ রুপি পর্যন্ত রোজগার করতে সক্ষম হবেন।’