টিডিএন বাংলা ডেস্ক: তাবলীগ জামাতের সদস্যদের গুলি করে মারা উচিত মন্তব্য করার জেরে আলিগড় থেকে গ্রেফতার হয়েছেন হিন্দু মহাসভার নেত্রী পূজা শাকুন পান্ডে ও মহাসভার মুখপাত্র অশোক পান্ডে। এবারও ফের তাবলীগ জামাতের সদস্যদের নিয়ে ফেসবুকে সাম্প্রদায়িক মন্তব্য করে গ্ৰেফতার হলেন অসমের এক যুবতী। সুচারিতা নাথ নামের ওই যুবতী ফেসবুক পোস্ট করেন যে, “মসজিদে বন্দি করে তাবলীগ জামায়াতের সদস্যদের জ্বালিয়ে দেওয়া উচিত”। তার এই পোস্ট কিছুক্ষণের মধ্যেই স‍্যোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

জানা গেছে, ওই যুবতী অসমের লালা শহরের বাসিন্দা। পেশায় তিনি শ্রীগুরু গ্যাস এজেন্সীর একজন কর্মী। তার ফেসবুক বিদ্বেষমূলক উগ্র সাম্প্রদায়িক মন্তব্যের স্ক্রিনশট অনেকেই নিয়ে পুলিশের দৃষ্টিগোচর করায়। এর পরেই হাইলাকান্দির এসপির নির্দেশে পুলিশ সুচারিতাকে বৃহস্পতিবার তার শহরের বাড়ি থেকে গ্ৰেফতার করে।

স্যোসাল মিডিয়ার পরিবেশ বিনষ্ট করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি আঘাত হানার চেষ্টায় লিপ্ত সুরুচিতা নাথকে উপযুক্ত শাস্তি প্রদানের দাবি জানান আইনজীবি বুরহান উদ্দিন বড়ভূইয়া, ছাত্র সংগঠন বিডিএসএফের সভাপতি আব্দুল আহাদ লস্কর, কৃষকমুক্তি সংগ্রাম সমিতির জহির উদ্দিন লস্কর।

উল্লেখ্য, বুধবার অসমের মুখ‍্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সানোয়াল বরাকে এক সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে করোনা ভাইরাস নিয়ে কোনো সাম্প্রদায়িক মন্তব্য না করার আহ্বান জানান। এমনকি তিনি এও বলেন যে কেউ যদি করোনা নিয়ে সমাজের মধ্যে বিষ ছড়ায় তবে তার বিরুদ্ধে কড়া ব‍্যবস্থা নেওয়া হবে। এরপরেই আবার সুচারিতার সাম্প্রদায়িক পোস্ট।