টিডিএন বাংলা ডেস্ক: রবিবার পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪ লক্ষেরও বেশি মানুষ। গত ২৪ ঘন্টায় রেকর্ডসংখ্যক করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এই ১২ লাখেরও বেশি করোনা পরীক্ষার ফলাফল অনুযায়ী, একদিনে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৯২,৫৭৪ জন। যার ফলে দেশের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৪ লক্ষ ৫ হাজার ২৫২।

তবে যত দ্রুততার সঙ্গে করোনাভাইরাস এ মানুষ প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছেন ঠিক ততটাই দ্রুততার সঙ্গে আক্রান্ত করোনা রোগী সুস্থও হয়ে উঠছেন। পরিসংখ্যান অনুসারে, এখনো পর্যন্ত ৪৩ লক্ষ ২ হাজার ৫৬২ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। শনিবার দেশ জুড়ে বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে মোট ৯৪,৩৮৪ জন রোগীকে করোনা মুক্তির পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।অপরদিকে, শনিবার সারাদিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ১,১৪৯ জন। যার ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৬,৭৯৬।

এদিকে, দেশজুড়ে আনলক পর্ব শুরু হয়ে যাওয়ার পর করোনা সংক্রমনের গতিরোধ করতে এখনই স্কুল এবং কলেজ চালু করতে অস্বীকার করেছে কর্ণাটক সরকার। কেন্দ্র সরকারের আনলক ৪ পর্বের নিয়ম অনুযায়ী নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীদের স্কুলে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রেও ছাড় দেওয়া হয়েছে। এই ছার মেনে নিতে রাজি নয় কর্ণাটক সরকার। এ প্রসঙ্গে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রাজ্যে কর্নার সংক্রমণ দ্রুততার সঙ্গে বেড়ে চলেছে। এই পরিস্থিতিতে ছাত্রদের স্কুল এবং কলেজে পাঠানো ঠিক হবে না।

অপরদিকে, করোনার সংক্রমণ রোধ করতে রাজস্থানের ১১ টি জেলায় জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। রাজস্থানের রাজধানী জয়পুরেও জারি হয়েছে কারফিউ।