নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, বীরভূম: ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচন আর মাত্র কয়েক মাস বাকি। আর সেই বিধানসভা নির্বাচন কাছে আসতেই রক্তাক্ত হতে শুরু করল বীরভূম। একই দিনে এই জেলা থেকে দুই তৃণমূল কর্মীর রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার হল। শনিবার সকালেই খয়রাশোল থানা এলাকা থেকে গুলিবিদ্ধ মৃতদেহ তৃণমূল কর্মীর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। আর বিকেলে লাভপুর থানা এলাকায় আরও এক তৃণমূল কর্মীর মৃতদেহ উদ্ধার। তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে যদিও বিজেপি তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন টাকা-পয়সার লেনদেনে গোষ্ঠী কোন্দলে খুন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে মৃত তৃণমূল কর্মী হলেন সহদেব বাগদি। বয়স ৪৫ বছর। বাড়ি লাভপুর থানার টিবা গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত ভাটরা গ্রামে। তিনি স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন সদস্য খুন। এদিন বিকেলে গ্রামের মাঠ থেকে ওই তৃণমূল কর্মী সহদেব বাগদীর গলা কাটা দেহ তার উদ্ধার হয়। সহদেব গরু লাঙ্গল নিয়ে মাঠে চাষ করতে বেরিয়েছিল। চাষের সেই গরু দুটি বাড়ি ফিরে চলে এলেও সহদেব বাড়ির না ফেরায় লোকজন খোঁজাখুঁজি করতে শুরু করেন। তারপরেই মাঠের নির্জন এলাকা থেকে রক্তাক্ত কোপানো মৃতদেহ উদ্ধার হয়। তৃণমূল নেতৃত্তের অভিযোগ বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই খুনের ঘটনায় জড়িত। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বিজেপি পাল্টা দাবি করেছে তাদের গোষ্ঠী গোষ্ঠী কোন্দলে এই খুনের ঘটনা। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় পুলিশি টহল পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।