সেখ সাদ্দাম হোসেন, টিডিএন বাংলা, ফুরফুরা: নর খাদক! হ্যাঁ! রাজস্থানের উগ্রহিন্দুত্ববাদী শম্ভুলালকে নর খাদকের সঙ্গে তুলনা করে কঠিন শাস্তির দাবি জানালেন ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা তামিম সিদ্দিকী। মালদার পঞ্চাশোর্ধ আফরাজুলকে অমানবিক ভাবে হত্যার তীব্র বিরোধিতা করে বলেন, “মৃতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানোর ভাষা খুঁজে পাচ্ছিনা। এই যুগেও এই রকম মানুষ রুপি পশু আছে যেটা না দেখলে বোঝা যেত না।”

 

টিডিএন বাংলাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “দেশকে ডিজিটাল বানাতে গিয়ে আইয়ামে জাহেলিয়াতের যুগ বানিয়ে ফেলেছে বর্তমান আর এস এস পরিচালিত বিজেপি সরকার। এটা মানবতার লজ্জা। বিশ্ব সভ্যতায় ভারতের মুখে চুন কালি মাখিয়ে দিয়েছে এই নিষ্ঠুর কর্মকান্ড।” আল-ফারাহ মিশনের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন যে, “আফরাজুলের হত্যা পুরো বাঙালী জাতির উপর আঘাত। তাই বাংলার অভিভাবক মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীকে বলবো আফরাজুলের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর পাশাপাশি এই ঘটনায় দোষীর চরম শাস্তির জন্য আন্দোলন করা। আমরা আশাবাদী আপনি এ বিষয়ে চরম পদক্ষেপ নেবেন।”

 

অপরদিকে আঞ্জুমানে জমিয়তে উলামার সম্পাদক পীরজাদা সানাউল্লাহ সিদ্দিকীও এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে বলেন, “দেশের পরিস্থিতি যদি এভাবে চরম বিশৃঙ্খলার দিকে এগিয়ে যায়, প্রশাসন যদি এর বিরুদ্ধে দৃঢ় পদক্ষেপ না নেয় তাহলে অত্যাচারিত হওয়া এই সম্প্রদায়ের মধ্যেও বিদ্রহের আগুন দেখা দেবে, তখন পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে যাবে।

তাই বলবো এইধরনের ঘটনা যাতে আর না ঘটে তার জন্য দোষীর চরম শাস্তি দেওয়া। আর পঞ্চাশ বছর বয়সী এক নিরীহ মানুষকে মেরে লাভিজিহাদের নাটক করাটা জাতির লজ্জা।” এছাড়াও অন্যান্য পীরসাহেব ও পীরজাদারা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান ও দোষীর চরম শাস্তির দাবী করেন।