নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মালদা: রাজ্য সরকারের ধান বিক্রির টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠলো তৃণমূল পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের বিরুদ্ধে। আর তার বিরুদ্ধে অভিযোগে সরব হলেন রাজ্যেরই প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী। প্রধান বর্তমান ইংরেজবাজারের বিধায়ক নিহার রঞ্জন ঘোষের ঘনিষ্ঠ। প্রায় তিন কোটি টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হলেও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন প্রধান। প্রধানের হয়ে সাফাই গেয়েছেন নিহার রঞ্জন ঘোষও।

সোমবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে কৃষ্ণেন্দু বাবু দাবি করেন, রাজ্য সরকার যে ধান বিক্রির টাকা অর্থ বরাদ্দ করেছে সেই টাকা বেনিফিশিয়ারিদের না দিয়ে ইংরেজবাজার যদুপুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সাজ্জাদ আলি আত্মসাৎ করেছে। তিনি শুভেন্দু অধিকারী সহ রাজ্য নেতৃত্বকে বারবার জানিয়েও কোনো লাভ না হওয়ায় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

যদিও সাজ্জাদ আলী বলেন, ভিত্তিহীন অভিযোগ। এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ইংরেজবাজারের বর্তমান তৃণমূল বিধায়ক নিহার রঞ্জন ঘোষ বলেন, অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ওই প্রধান কোনো দুর্নীতির সাথে যুক্ত নয়।

এদিকে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল তারিয়ে তারিয়ে কার্যত উপভোগ করছে বিজেপি। বিজেপির মালদা জেলার সহ-সভাপতি অজয় গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, এক সময় আমরা দুর্নীতির অভিযোগ করেছি। এখন তৃণমূলের নিজেদের দলের লোকেরাই অভিযোগ করছে। এর থেকে বোঝা যাচ্ছে তৃণমূল দুর্নীতিগ্রস্ত দল।