নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মালদা: বিডিও’র সই জাল করে নিয়মবহির্ভূতভাবে প্রায় ৯০ লক্ষ টাকার অবৈধ টেন্ডার করার অভিযোগ উঠল গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের বিরুদ্ধে। মালদার বামন গোলা ব্লকের মদনাবতী গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই রীতিমতো চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনায় অভিযোগের তীর উঠেছে গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের প্রধান রঞ্জিতা হালদারের বিরুদ্ধে। গোটা ঘটনা নিয়ে সরব হয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্বের একাংশ। প্রধানের দাবি, গোষ্ঠী কোন্দলের জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে।

এদিন বামন গোলা পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূলের সদস্য সুশান্ত কুমার সরকারের অভিযোগ, ব্লক ডেভেলপমেন্ট অফিসারের সই-শীল জাল করে চুপিসারে টাকা আত্মসাৎ করার জন্য অবৈধভাবে টেন্ডার করেছেন গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান। যদিও প্রধান রঞ্জিত হালদারের দাবি, সব কিছু নিয়ম-কানুন মেনে হয়েছে। দলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে এই অভিযোগ তুলেছে দলেরই একাংশ। এদিকে গোটা ঘটনা নিয়ে সরব হয়েছেন বিজেপির উত্তর মালদার সাংসদ খগেন মুর্মু। তিনি বলেন, এটাই তৃণমূলের সংস্কৃতি। এটা তৃণমূলের পক্ষেই সম্ভব।

তৃণমূলের মালদা জেলার সাধারণ সম্পাদক দেবপ্রিয় শাহ বলেন, অভিযোগ প্রমাণিত হলে অভিযুক্তদের দলে রাখা হবে না। জেলা শাসকের নির্দেশে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন বামন গোলা ব্লকের বিডিও। এবিষয়ে যদিও বিডিও সনজিৎ মন্ডলের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।