পেগাসাসের নজরে ছিল কর্ণাটকের প্রাক্তন জোট সরকারের মন্ত্রী-আমলারাও!

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : যত দিন যাচ্ছে ততই, পেগাসাস কাণ্ড তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে। ওই স্পাইওয়্যার দিয়ে রাহুল গান্ধি, প্রশান্ত কিশোর, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফোনেই শুধু কান পাতা হয়নি। সংবাদমাধ্যম ‘ দ্যা ওয়ার’ এবার দাবি করল, তাদের হাতে যে হ্যাকিং লিস্টের তালিকা রয়েছে, সেখানে কর্নাটকে প্রাক্তন কংগ্রেস-জেডিএস জোট সরকারের একাধিক মন্ত্রী ও সরকারি আমলারাও রয়েছে। আর এরপর ফের বিতর্ক দানা বেঁধেছে।

ওই সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, কর্নাটকের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামীর ব্যক্তিগত সচিব, উপমুখ্যমন্ত্রী জি পরমেশ্বর, এমনকি কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া ফোন নম্বর উঠে এসেছিল পেগাসাসের নজরদারির লিস্টে। তবে ঘটনা হলো যেহেতু অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ল্যাবে ফরেনসিক পরীক্ষা হয়নি, তাই সঠিক করে বলা সম্ভব নয় যে এই নম্বরগুলি হানাদারদের নজরদারির শিকার হয়েছিল কীনা। তবে হ্যাকিংয়ের সম্ভাব্য তালিকা এইসব ভিভিআইপিদের নাম থাকায় যথেষ্ট গন্ডগোলের বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

২০১৯ সালে কর্নাটকের মন্ত্রী আমলাদের ওপর নজরদারি চালানো হয়েছিল। এমনই সূত্রের খবর। প্রসঙ্গত এই সময়ই তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমার স্বামীর মন্ত্রিসভার একাধিক মন্ত্রী বিদ্রোহী হয়ে ওঠেন। ব্যাপক গোলমাল এমন একটা জায়গায় পৌঁছয় যে, কংগ্রেস ও জেডিএস এর জোট সরকার ভেঙে যায়। তারপর ক্ষমতায় আসে বিএস ইয়েদদুরাপ্পার বিজেপি সরকার।