আরএসএসের সদর দপ্তর নাগপুরের নির্বাচনে ধুয়ে মুছে সাফ বিজেপি!

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : আরএসএস-এর গড়েই ল্যাজেগোবরে পদ্ম শিবির। নির্বাচনে বড়সড় সাফল্য পেল কংগ্রেস।
মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিশের নির্বাচনী ক্ষেত্র। অথচ সেখানেই পদ্ম ফোটাতে পারল না গেরুয়া ব্রিগেড। জেলা পরিষদের উপনির্বাচনে লজ্জার হার হারতে হল তাদের। ঘটনা হল নাগপুরের ১৬টি জেলা পরিষদ আসন ফাঁকা ছিল। সম্প্রতি তাতে নির্বাচন হয়। ১৬টি আসনের মধ্যে ৯টিই গিয়েছে কংগ্রেসের ঝুলিতে। এনসিপি পেয়েছে ৩টি আসন। অন্যদিকে বিজেপি পেয়েছে ২টি আসন।একটি করে আসন জিতেছে স্থানীয় দুটি দল। ঘটনাচক্রে এখানে শিবসেনা কোনও আসন পায়নি।
জেলা পরিষদের পাশাপাশি নির্বাচন হয়েছিল নাগপুরে পঞ্চায়েত সমিতিরও। তাতে ৩১টি আসনের মধ্যে কংগ্রেসের দখলে গেছে ২১টি আসন। বিজেপি পেয়েছে ৬টি। আর এনসিপির আসন সংখ্যা ২। যার মানে হল, কংগ্রেস এখন ভাবেই আরএসএস গড়ে জেলা পরিষদ ও পঞ্চায়েত সমিতিতে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করল। নির্বাচনের এই ফল যেমন কংগ্রেস কর্মীদের অক্সিজেন জোগাল, তেমনি বিজেপি কর্মীদের কপালে চিন্তার ভাঁজ চওড়া করল।

উল্টো চিত্রও আছে। ধুলে, আকোলা, ওয়াসিম, পালঘর এবং নন্দুরবাতেও জেলা পরিষদের একাধিক ওয়ার্ডে নির্বাচন হয়েছে। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী বিজেপি সেখানে এগিয়ে রয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে কংগ্রেস, তারপরই রয়েছে এনসিপিএ। এই সব ওয়ার্ডে খুব ভালো ফল করতে পারেনি শিব সেনা। মঙ্গলবার গুজরাতের গান্ধিনগরের পুরসভা নির্বাচনে ধাক্কা খেয়েছে কংগ্রেস। তারপর মহারাষ্ট্রের এই ফলাফল হাত শিবিরকে স্বস্তি দেবে বলেই মত রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।