HighlightNewsআন্তর্জাতিক

তুরস্কের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা, তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সন্ত্রাসীদের ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিল তুর্কি সেনা, কড়া হুঁশিয়ারি প্রেসিডেন্ট এরদোগানের 

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: গতকাল রবিবার আঙ্কারার কিজিল এলাকায় পার্লামেন্ট ভবন ও তুরস্কের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা।বিস্ফোরণ ও গুলির শব্দে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে এলাকাবাসী। যদিও শেষ পর্যন্ত তাদের লক্ষ্যে সফল হতে পারেনি সন্ত্রাসীরা। এদিকে সন্ত্রাসী হামলার পরপরই তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া হিসাবে ইরাকে সন্ত্রাসীদের ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দেয় তুর্কি সেনারা।  সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে তুর্কি নিরাপত্তা বাহিনীর সন্ত্রাস বিরোধী লড়াই অব্যাহত থাকবে এবং তাদের স্বমূলে ধ্বংস করা হবে বলে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান।

বার্তা সংস্থা ইরনা জানিয়েছে, তুরস্কের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই অভিযানকে সন্ত্রাসী হামলা বলে উল্লেখ করেছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভবনের সামনে দুই আত্মঘাতী বোমা হামলাকারীকে সনাক্ত করা হয়েছে। তাদের একজন আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটানোর  আগেই নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে নিহত হন। অন্যজন আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেকে উড়িয়ে দিতে সক্ষম হয়।

তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলি এরলিকায়া বলেছেন ওই অভিযানে তুরস্কের নিরাপত্তা বাহিনীর ২ সদস্যও সামান্য আহত হয়েছেন। আঙ্কারার পাবলিক প্রসিকিউটর অফিস ওই সন্ত্রাসী হামলার তদন্ত শুরু করেছে। এলাকাটি এখন নিরাপত্তা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বলেছেন, তার দেশে সন্ত্রাসবিরোধী লড়াই অব্যাহত থাকবে এবং যেসব সন্ত্রাসী দেশের শান্তি ও নিরাপত্তা বিনষ্ট করার চেষ্টা করছে তারা কখনো সফল হতে পারবে না।

প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, তুরস্কের জনগণ গত ৪০ বছর ধরে সন্ত্রাসবাদের কারণে জীবন ও সম্পদ দিয়ে যে চরম মূল্য দিয়েছে তার অনেকটাই সমাধান হয়েছে। তবে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য ঐক্য ও সংহতি জোরদার হওয়া প্রয়োজন বলে তিনি উল্লেখ করেন। এরদোগান আরো বলেন, “আমরা কখনো সন্ত্রাসীদেরকে সরাসরি তুরস্কের রাজনীতি করতে দেবো না।” তুর্কি প্রেসিডেন্ট জোর দিয়ে বলেন, সন্ত্রাসীদের একজনও দেশের ভেতরে বা বাইরে তৎপর থাকা পর্যন্ত সন্ত্রাসবিরোধী লড়াই অব্যাহত থাকবে। সূত্র – পার্সটুডে

Related Articles

Back to top button
error: