ব্রিকস সম্মেলনে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কড়া বার্তা প্রধানমন্ত্রীর

ছবি প্রতিকী

ছবি সৌজন্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির টুইটার পেজ।

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : আফগানিস্তানে অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করেছে তালিবান। এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবারই পাঁচ দেশীয় BRICS শীর্ষ সম্মেলন হয়ে গেল। BRICS-এর সদস্য দেশগুলি হল ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চিন এবং দক্ষিণ আফ্রিকা। এই বৈঠকেই উঠল আফগান প্রসঙ্গ। বৈঠকে আফগানিস্তানকে সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে কড়া বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি এদিন নিজের ভাষণে প্রথমেই জানিয়ে দিলেন, ‘আফগানিস্তান যেন সন্ত্রাসের আতুঁরঘর না হয়ে ওঠে’। পাশাপাশি তাঁর হুঁশিয়ারি, ‘আফগানিস্তান যেন তার প্রতিবেশী দেশগুলোর জন্য হুমকি, মাদক পাচার ও সন্ত্রাসের উৎস না হয়ে ওঠে’। এবারের সম্মেলনের বিষয়বস্তু ছিল ধারাবাহিকতা, সংহতি এবং ঐক্যমত। কিন্তু তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, আলোচনা ঘুরে যায় আফগান পরিস্থিতির দিকে। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আফগানিস্তানের নাগরিকরা দশকের পর দশক ধরে নিজেদের অধিকারের জন্য এবং তাঁদের দেশ কেমন হবে, তা ঠিক করার জন্য সংগ্রাম করেছে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এই সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন। তিনি বলেন, আফগানিস্তান থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তাঁর মিত্রদেশগুলির সৈন্য প্রত্যাহার নতুন সঙ্কটের দিকে নিয়ে গিয়েছে। এটি কীভাবে আঞ্চলিক এবং বিশ্বের নিরাপত্তাকে প্রভাবিত করবে সেটা এখনও আমাদের কাছে অজানা। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, বিশ্বের নিরাপত্তা এখন কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছে। BRICS দেশগুলির উচিৎ এই বিষয়ে বিশেষ মনোযোগ দেওয়া। তবে ১৫ অগস্ট তালিবরা কাবুলের দখল নেওয়ার পরই চিন তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। পাশে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তানও।