HighlightNewsদেশ

দুই বছরে হয়নি অর্থ মন্ত্রকের পরামর্শ কমিটির বৈঠক, কমিটি ছাড়লেন তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দু শেখর

টিডিএন বাংলা ডেস্কঃ কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রককে পরামর্শ দেওয়ার জন্য বিভিন্ন দলের সাংসদদের নিয়ে একটি পরামর্শক কমিটি আছে। এর প্রধান হলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। দেশে চরম অর্থনৈতিক সঙ্কট দেখা দিয়েছে, বেকারত্বের হার বাড়ছে, জিডিপির গ্রোথ কমছে। অথচ গত দু’বছরে এই অর্থ মন্ত্রকের পরামর্শ কমিটির কোনো বৈঠক ডাকা হয়নি। ফলে এ ধরনের অর্থহীন পরামর্শক কমিটিতে থেকে সময় নষ্ট করা অর্থহীন বলে জানিয়ে দিয়েছেন তৃনমূলের সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়। তিনি দলের রাজ্যসভার নেতা ডেরেক ও’ব্রায়েনকে তাঁর সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন। সুখেন্দুশেখর বলেন, “দেশের এই ভয়াবহ অর্থনৈতিক পরিস্থিতির মধ্যে কোনও কথাই আমাদের সংসদে বলতে দেওয়া হয় না। নামেই পরামর্শদাতা কমিটি রয়েছে, কিন্তু গত দু’বছর কোনও বৈঠকই ডাকেননি সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। এক দিকে সংস্কারের নামে রাষ্ট্রীয় সম্পদ বেচে দেওয়া হচ্ছে। অন্য দিকে কয়েক জন শিল্পপতিকে আরও ধনবান করা হচ্ছে। সরকার দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে। কিন্তু এই কথাগুলি বলার জায়গা নেই। ফলে এই কমিটিতে থেকে নিজের সময় নষ্ট করা অর্থহীন।” উল্লেখ্য যে, গতকাল বিভিন্ন সংসদীয় স্থায়ী কমিটির নতুন সদস্যদের নাম জানানো হয়েছে। যদিও কংগ্রেস, তৃণমূল সহ বিরোধীদের অভিযোগ মোদি সরকার গণতান্ত্রিক রীতি অমান্য করে সমস্ত সংসদীয় কমিটি চেয়ারম্যান পদে বিজেপির লোকদেরকে বসাচ্ছে। তারা সমস্ত ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখতে চায় যা গণতন্ত্র বিরোধী। শুধু তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কেই একটি স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান পদে বসানো হয়েছে। এছাড়া কোনো কেন্দ্রীয় সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান পদে বাংলার কোনো বিজেপি নেতাকে বসানো হয়নি বলে জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button
error: