HighlightNewsদেশ

মিজোরামের ৪০ আসনে ভোট শেষ হয়েছে: ১০১ বছরের বৃদ্ধ থেকে একজন অন্ধ ব্যক্তি সবাই দিলেন ভোট; মুখ্যমন্ত্রীর বুথে নষ্ট ইভিএম

শেষ হয়েছে মিজোরামের ৪০ আসনের ভোট। একশো এক বছরের বৃদ্ধ থেকে শুরু করে অন্ধ ব্যক্তিও দিলেন ভোট। মঙ্গলবার সকাল ৭টায় মিজোরামের ৪০টি বিধানসভা আসনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়। শেষ হয় বিকেল ৪টায়। এখন, শুধু তারাই ভোট দিতে পারবেন, যারা ভোটকেন্দ্রের ভেতরে এসেছিলেন। নির্বাচন কমিসনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, রাজ্যে ভোট পড়েছে ৭৭.০৪%। সর্বোচ্চ ভোট পড়েছে সেরছিপে ৭৭.৭৮% এবং সর্বনিম্ন ৫২.০২% পড়েছে সিয়াহাতে। আইজলে ৬৫.০৬% ভোট পড়েছে। মিজোরামে, ২০১৮ সালের বিধানসভা নির্বাচনে ৮১.৬১% ভোট পড়েছে।

রাজ্যপাল হরি বাবু কামহামপতি সকাল ৮:১৫-এ আইজল দক্ষিণে ভোট দেন। মুখ্যমন্ত্রী জোরামথাঙ্গা সকাল ৭টার দিকে ভোট দিতে এসেছিলেন, কিন্তু ইভিএম মেশিনে ত্রুটির কারণে ফিরে যান। চার ঘণ্টা পর ফিরে এসে ভোট দেন তিনি।

মিজোরাম কংগ্রেস সভাপতি লাল সাওতা দাবি করেছেন যে, আমরা মিজোরামে পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠন করতে যাচ্ছি। আমরা ২২টি আসনে জিততে চলেছি।

ক্ষমতাসীন মিজো ন্যাশনাল ফ্রন্ট (এমএনএফ), জোরাম পিপলস মুভমেন্ট (জেডপিএম) এবং কংগ্রেস ৪০টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল। যেখানে বিজেপি ২৩টি আসনে এবং আম আদমি পার্টি ৪টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে। ২৭ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ফলাফল আসবে ৩ ডিসেম্বর।

এদিকে, আইজলে, ৬৫ বছর বয়সী কর্মী লালবিয়াকাথাঙ্গা সকাল ৭টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত অনশনে বসেন। তিনি নির্বাচন কমিশনের কাছে ৩ ডিসেম্বর গণনার দিন পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছিলেন। ৩রা ডিসেম্বর, রবিবার অনুষ্ঠিত হতে চলা গণনার দিন বদলানোরও দাবি জানিয়েছে একাধিক দল। কারণ এর জন্য জামাতের কর্মসূচি পরিবর্তন করতে হবে। উল্লেখ্য, মিজোরামে খ্রিস্টানদের একটি বিশাল জনসংখ্যা রয়েছে।

Related Articles

Back to top button
error: