বাড়াবাড়ি করলে জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে: দিলীপ ঘোষ

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : কোচবিহারের শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে চার গ্রামবাসীর মৃত্যুর ঘটনায় উত্তাল রাজ্যরাজ্যনীতি। ভোটের দিন ঘটে যাওয়া ওই মর্মান্তিক ঘটনাকে ইতিমধ্যেই ‘গণহত্যা’ বলে দাবি করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । সেই সাথে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমিত শাহের পদত্যাগ চেয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে মমতার কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘেরাওয়ের উস্কানি বলেই এই ঘটনাকে বকলমে নরেন্দ্র মোদী দায়ী করে গিয়েছেন। এরই মধ্যে দিলীপ ঘোষ মুখ খললেন শীচলকুচি নিয়ে। রবিবার উত্তর চব্বিশ পরগনার বরানগরের বিজেপি প্রার্থী তথা অভিনেত্রী পার্নো মিত্রের সমর্থনে এলাকার  প্রগতি সংঘের মাঠে জনসভা করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানে দিলীপ ঘোষ বলেন,’বাড়াবাড়ি করলে জায়গায়-জায়গায় শীতলকুচি হবে।’ সেই সাথে তিনি আরও বলেন, “মানুষ সমস্ত ভয়কে উপেক্ষা করে সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিচ্ছেন। আগামী ১৭ তারিখও আপনারা সকালবেলায় গিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দেবেন। কেন্দ্রীয় বাহিনী বুথে থাকবে। কেউ লাল চোখ দেখাতে পারবে না আমরা আছি। আর কেউ যদি বাড়াবাড়ি করে… আপনারা শীতলকুচি দেখেছেন কি হয়েছে। জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে। তাই সাবধানে থাকবেন।”

দিলীপ ঘোষের এহেন মন্তব্যের পর জোর কদমে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা।