কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ও তার সফরসঙ্গীদের হত‍্যার প্রচেষ্টা : ঘটনায় জড়িতদের উদ্দেশ্যে চলছে তল্লাশি

কলম্বিয়ান প্রেসিডেন্ট

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভান ডুকে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও ওই প্রদেশের গভর্নর ভেনেজুয়েলা সীমান্ত সংলগ্ন কলম্বিয়ার নর্টে ডি স‍্যান্টাডার প্রদেশের কুকুটার উদ্দেশ্যে হেলিকপ্টারে করে রওনা দিয়েছিলেন। এই সময় তারা অনুভব করেন হঠাৎ কিছু একটা এসে তাদের কপ্টারে আঘাত করেছে। পরে তারা জানতে পারেন তাদের কপ্টারে গুলি করা হয়ে ছিল। প্রেসিডেন্টের এক মুখপাত্র বলেছেন গুলিতে কেউ আহত হননি।

এই হামলাকে ‘কাপুরুষোচিত’ বলে নিন্দা জানিয়েছেন কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভান ডুকে। এ প্রসঙ্গে তিনি মন্তব্য করেন, ‘সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বা সহিংসতা দিয়ে তাকে ভীতসন্ত্রস্থ করা যাবে না।’ তিনি টুইটারে একটি ভিডিও বার্তায় বলেন, ‘আমার রাষ্ট্র শক্তিশালী এবং কলম্বিয়া এমন হুমকি মোকাবিলা করবে দৃড়তার সঙ্গে।’

তিনি এই ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করতে নির্দেশ দিয়েছেন নিরাপত্তা বাহিনীকে। স্থানীয় এক পত্রিকা জানিয়েছে, ‘হেলিকপ্টারটি ঠিক যখন অবতরণ করতে যাবে তখনি তার ইঞ্জিনে কিছু এসে আঘাত করার শব্দ শুনতে পান ভিতরের সবাই।’

উল্লেখ্য যে, কলম্বিয়া ভেনেজুয়েলা সীমান্তে অবস্থিত কাটাটুম্ব অঞ্চলটি নিয়ন্ত্রণ করছে বিদ্রোহী গোষ্ঠী ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি। ১৯৭৪ খ্রীষ্টাব্দে প্রতিষ্টিত এই সশস্ত্র সংগঠনটি এই অঞ্চলে ভূমি এবং সম্পদের সমান অধিকারের দাবিতে লড়াই করছে। লিবারেশন আর্মি কে কলম্বিয়া, আমেরিকা এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে বিবেচনা করে। এই মাসের শুরুতে কুকুটায় একটি সামরিক ঘাঁটিতে বোমা হামলায় অজ্ঞাত হামলাকারীরা। এই ঘটনায় আহত হয়েছিলেন ৩৬ জন। আমেরিকার দুজন সামরিক উপদেষ্টা ও এই ঘটনায় আহত হয়।