ভারতে করোনা মহামারীর ভয়াল রূপের জন্য দায়ী রাজনৈতিক ও ধর্মীয় জমায়েত; দাবি ‘হু’-র রিপোর্টে

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: ভারতে করোনা মহামারীর ভয়াল রূপের জন্য রাজনৈতিক ও ধর্মীয় জমায়েতকেই দায়ী করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। হু-র তরফ থেকে প্রকাশিত করোনা বিষয়ক সাপ্তাহিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, “ভারতে কোভিড-১৯ সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাতের পিছনে রাজনৈতিক জনসভা এবং ধর্মীয় জমায়েতের বড় ভূমিকা রয়েছে।”

হু-র ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০২০-র অক্টোবরে প্রথম ভারতে করোনা ভাইরাসের বি.১.৬১৭ প্রজাতিটির সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল যা করোনার ভারতীয় রূপ বলে পরিচিতি পেয়েছে তা দ্রুত দেশ জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। এর পরে করোনা ভাইরাসের ওই প্রজাতিটির দু’দফার জিনগত চরিত্র বদল হয়। যার ফলে তৈরি হয় বি.১.৬১৭ ভাইরাস, যাকে ‘দ্বি-পরিব্যক্ত’ (ডাবল মিউট্যান্ট) হিসেবে চিহ্নিত করেছে ‘হু’। করোনা ভাইরাসের অন্য প্রজাতিগুলির তুলনায় এর সংক্রমণ ক্ষমতা অনেক বেশি। যা রাজনৈতিক কর্মসূচি বা ধর্মীয় অনুষ্ঠানে সামাজিক দূরত্ববিধি পালিত না হওয়ায় দ্রুততার সঙ্গে ছড়িয়ে পড়েছে।

হু-র আগে আন্তর্জাতিক চিকিৎসা বিষয়ক পত্রিকা ল্যানসেট-ও ভারতের ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতির জন্য রাজনৈতিক এবং ধর্মীয় সমাবেশের মতো অতি সংক্রামক অনুষ্ঠানকে দায়ী করেছিল। ল্যানসেটের ওই প্রতিবেদনে সরাসরি নরেন্দ্র মোদী সরকারের সমালোচনাও করা হয়েছিল।