শুভেন্দুর পর এবার আচমকাই দিল্লিতে অর্জুন-সৌমিত্র-নিশীথ প্রামানিক; অন্ধকারে রাজ্য নেতারা

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: রবিবার আচমকাই দিল্লিতে গিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। এরপর সোমবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। আজ বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গেও বৈঠক করবেন শুভেন্দু। অথচ তাঁর এই দিল্লিগমনের সম্পর্কে কিছুই জানতেন না রাজ্য বিজেপির নেতারা।সংবাদমাধ্যমের কাছে এ কথা নিজেই জানিয়েছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়,”শুভেন্দু কেন দিল্লি গেছেন তার দিল্লির নেতারাই বলতে পারবেন।” এবার বুধবার সকালে বিজেপির তিন সংসদ অর্জুন সিংহ, নিশীথ প্রামানিক এবং সৌমিত্র খাঁও পৌঁছে গেলেন দিল্লিতে। এবারেও তাদের এই দিল্লি যাত্রা সম্পর্কে কোনো তথ্য নেই রাজ্য বিজেপির নেতাদের কাছে।

এদিকে, শুভেন্দু দিল্লিতে থাকাকালীনই দিল্লি পৌঁছেছিলেন বিজেপির ‘বিক্ষুব্ধ নেতা’ তথাগত রায়। মঙ্গলবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপিন আড্ডার সঙ্গে সাক্ষাৎও করেন তিনি।এই পরিস্থিতিতে শুভেন্দু তথাগতর পর আজ সকালে অর্জুন সিংহ নিশীথ প্রামানিক এবং সৌমিত্র খাঁ দিল্লিতে পৌঁছানো কোনো কাকতালীয় ঘটনা নাকি এর পেছনে লুকিয়ে রয়েছে কোন অন্য সমীকরণ তা নিয়েই আপাতত জল্পনা চলছে রাজ্য বিজেপির অন্দরে।

সূত্রের খবর অনুযায়ী বিজেপির অভ্যন্তরে অনেকেই মনে করছেন শুভেন্দু অধিকারীর ডাকেই দিল্লিতে পৌঁছেছেন বিজেপির এই তিন সংসদ।আবার অনেকে মনে করছেন বিজেপির এই তিন সাংসদের দিল্লি পৌঁছনোর পেছনে থাকতে পারে কোন ব্যক্তিগত কারণ। তাদের যুক্তি দিল্লিতে যেতে গেলে দলকে জানিয়ে যেতে হবে এমন কোন কথা তো লেখা নেই। তবে শুভেন্দু অধিকারীর দিল্লি যাত্রার পড়ি বিজেপির তিন সংসদের আচমকাই দিল্লিতে পৌঁছানো নিয়ে যথেষ্টই সরগরম হয়েছেন রাজ্য বিজেপির নেতারা।এমনিতেই মঙ্গলবার কলকাতার রাজ্যের নেতাদের বৈঠকে মুকুল রায় রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় অনুপস্থিতি নিয়ে বেশ অস্বস্তিতে রয়েছে গেরুয়া শিবির। এরইমধ্যে রাজ্যের তিন বিজেপির সংসদের এহেন আচমকা দিল্লি গমন যথেষ্ট চিন্তায় ফেলেছে রাজ্য বিজেপির নেতাদের।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, মঙ্গলবার বিজেপির বৈঠকে বিধানসভা নির্বাচনে দলের নীতির বিরোধিতা করে সরব হয়েছিলেন অর্জুন সিংহ। দিন কয়েক আগেই দলের একটি হোয়াৎসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে নিজেই বেরিয়ে আসেন সৌমিত্র খাঁ। এমনকি, নিজের লোকসভা এলাকা বিষ্ণুপুরে দিলীপ ঘোষের বৈঠক ও এড়িয়ে যান সৌমিত্র। পাশাপাশি নিশীথ প্রামাণিকের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়েও বেশ কিছুদিন ধরে দলের অভ্যন্তরে নানা প্রশ্ন উঠছে। এই পরিস্থিতিতে এই তিন সংসদের দিল্লি যাত্রা নতুন করে রাজ্য বিজেপির নেতাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলল বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।