বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের, নবান্নে ডাক শিক্ষা সচিব ও সাংসদের সভানেত্রীকে

  • টিডিএন বাংলা ডেস্কঃ উচ্চমাধ্যমিকের ফল প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে একের পর এক বিতর্ক সৃষ্টি হয়েই চলেছে। বিতর্ক যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না। উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফল প্রকাশিত হতেই সংসদের ভূমিকা নিয়ে বিভিন্ন জেলাতে ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বিভিন্ন জায়গাতে। বিক্ষিপ্ত প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ দেখিয়েছেন ছাত্র-ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকরা। মুর্শিদাবাদের এক স্থানে টায়ার পুড়িয়ে বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে আগুনে পুড়ে যায় এক ছাত্রের কানের একটি অংশ। বিক্ষোভ প্রদর্শন হয়েছে সল্টলেকে শিক্ষা সংসদের অফিসের সামনে। এখানে প্রিয়নাথ বালিকা বিদ্যাপীঠ এর ছাত্রীরা বিক্ষোভ দেখায়। বেশ কিছু স্কুলের শিক্ষার্থীদের অভিযোগ উচ্চমাধ্যমিকে কোথাও অর্ধেক বা তারও বেশি পরীক্ষার্থী অনুত্তির্ণ হয়েছে যা অস্বাভাবিক। এজন্য তারা স্কুল কর্তৃপক্ষের গাফিলতি কে দায়ী করেছেন। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর বাড়ির সামনেও বিক্ষোভ প্রদর্শন করে একদল ছাত্র। বীরভূমের ইসলামবাজার হাইস্কুলের ২৫-৩০ জন ছাত্র-ছাত্রী রেজাল্ট বার হওয়ার ২ দিন পরেও রেজাল্ট হাতে না পাওয়া বিক্ষোভ দেখায়। দক্ষিণ ২৪ পরগনা রায়দিঘী শ্রিফলতলা চন্দ্রকান্ত হাইস্কুলের গেটে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়। যার ফলে প্রায় ৬ ঘণ্টা আটকে ছিলেন শিক্ষক শিক্ষিকারা জানিয়েছে বিভিন্ন সূত্র। এ ছাড়াও জেলাতে জেলাতে বহু জায়গা থেকে বিক্ষোভের খবর এসেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শিক্ষা সংসদের মুখ্য সচিব ও সভানেত্রীকে ডেকে পাঠিয়েছে নবান্ন। নবান্ন সূত্রে খবর, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের সমস্যা সমাধানে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শিক্ষা সাংসদকে তাদের ভবিষ্যৎ নষ্ট না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে বলা হয়েছে। শিক্ষা সংসদের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, “এক সপ্তার মধ্যে সমস্ত স্কুলের প্রধান শিক্ষক শিক্ষিকা মহাশয়দের সমস্ত অভিযোগ বা আবেদন গুলি শিক্ষা সংসদের জমা দিতে হবে। বেলা ১টা থেকে ৫টা পর্যন্ত থাকছে সাক্ষাতের ব‍্যবস্থা।”