গরিব জেলায় কোটিপতি ভোট প্রার্থীর ভিড়

টিডিএন বাংলা, মালদা: পশ্চিমবঙ্গের গরিব অধ্যুষিত জেলাগুলির অন্যতম। অথচ এই জেলায় বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছেন এমন কোটিপতি প্রার্থীর সংখ্যা প্রায় এক ডজন। নমিনেশন জমা দেওয়ার সময় নির্বাচন কমিশনকে দেওয়া তথ্য থেকে জানা যায় তিনটি বড় রাজনৈতিক দল তৃণমূল কংগ্রেস, কংগ্রেস এবং বিজেপি প্রত্যেকেই দাঁড় করিয়েছেন একাধিক কোটিপতি প্রার্থীর। এদের মধ্যে অনেকেই এমন আছেন যারা তাদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির যে হিসাব দিয়েছেন তার থেকে তাদের স্ত্রীদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ বেশি।

হরিশ্চন্দ্রপুরের বিজেপি প্রার্থী মতিউর রহমান অষ্টম শ্রেণী পাস। তার অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ৩.৭৭ কোটি এবং স্থাবর সম্পত্তি প্রায় ১ কোটি। তার স্ত্রীর অস্থাবর সম্পত্তি ২৩.৮৫ কোটি মতিউর রহমান একজন ব্যবসায়ী।

বিজেপির আরেক জন প্রার্থী দীপঙ্কর রাম। তিনি এলপিজি গ্যাসের ডিস্ট্রিবিউটার। তার অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ১.৩৭ কোটি এবং স্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ৪ কোটি। তার স্ত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ ৪০ লাখ।
মালতিপুর তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী আব্দুর রহিম বক্সী। তিনি কংগ্রেস থেকে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। তার সম্পত্তির পরিমাণ ৫০ লাখ। কিন্তু তার স্ত্রী আইসিডিএস কর্মী এবং ব্যবসায়ী। তার সম্পত্তির পরিমাণ ৩.৮৩ কোটি।

তৃণমূল কংগ্রেসের আরেকজন প্রার্থী সমর মুখার্জি। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। রতুয়া থেকে তিনি প্রতিদ্বন্দিতা করবেন। তার সম্পত্তির পরিমাণ ১.২৫ কোটি এবং তার স্ত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ ৮৪ লাখ। সুমন মুখার্জী চারবারের এমএলএ কংগ্রেস থেকেই তিনি নির্বাচিত। উজ্জল চৌধুরি বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগদান করেছেন। তিনি মালদা ফুয়েল স্টেশন এর মালিক। তার সম্পত্তির পরিমাণ ৭কোটি। এছাড়াও আছেন মালদা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী গোপাল চন্দ্র সাহা, ইংলিশ বাজারের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কৃষ্ণেন্দু চৌধুরী, মোথাবাড়ি তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী সাবিনা ইয়াসমিন, এবং বিজেপি প্রার্থী শ্যামচাঁদ ঘোষ, মানিকচকের বিজেপি প্রার্থী গৌর চন্দ্র মন্ডল এবং মানিকচকের কংগ্রেস প্রার্থী মোস্তাকিম আলী। সুজাপুরে ঈশা খান চৌধুরী এবং পায়েল খাতুন এই সকল প্রার্থী মালদায় কোটিপতি প্রার্থী।