রাত পোহালেই একুশে জুলাই

নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা : রাত পোহালেই একুশে জুলাই। তৃণমূল কংগ্রেসের শহীদ স্মরণ অনুষ্ঠান। করোননা পরিস্থিতিতে কোনো বড় সমাবেশ হচ্ছে না এবছরও। ভার্চুয়াল সভায় ভাষণ দেবেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবছর মমতার বক্তব্য শুধু বাংলা কেন্দ্রিক নয়, সারা দেশের প্রেক্ষাপটে বক্তব্য রাখবেন তৃণমূল সুপ্রিমো। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও উত্তরপ্রদেশ, মণিপুর, ত্রিপুরা, পাঞ্জাব, ঝাড়খন্ড, আসাম সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে জায়ান্ট স্ক্রিনের মাধ্যমে শোনানো হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাষণ। লক্ষ্য ২০২৪এর লোকসভা নির্বাচন। দিল্লির মসনদ থেকে নরেন্দ্র মোদী সরকারকে উৎখাত করার লক্ষ্য। আর সেই লক্ষ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশজুড়ে বিজেপি বিরোধী শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করার আহ্বান জানাতে চলেছেন এবারের একুশে জুলাই এর ভার্চুয়াল মঞ্চ থেকে।

একুশে জুলাই এর স্মরণে কলকাতার রাজপথে পরিভ্রমণ শুরু করল একটি সুসজ্জিত ট্রাম। একুশে জুলাই এর বিভিন্ন স্মৃতি উঠে এসেছে এই ট্রামে। স্মরণ করা হয়েছে হাজার ১৯৯৩ সালের সেই শোকস্তব্ধ দিনটিকে। পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের তথ্য তুলে ধরা হয়েছে এই ট্রামের গায়ে। রাজ্যের কৃষি মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় মঙ্গলবার নোনাপুকুর ট্রাম ডিপোয় এই সুসজ্জিত ট্রামটি উদ্বোধন করলেন। তিনি বলেন এবারের একুশে জুলাই সর্বভারতীয় পেক্ষাপটে। কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি সরকারের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে আন্দোলনের ডাক দেবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ১৯৯৩ সালে রাজ্যের বামফ্রন্ট সরকারকে হটানো ডাক দিয়ে সেই কর্মসূচি পালন করা হয়েছিল। আর এবার কেন্দ্রের মোদি সরকারকে দিল্লির মসনদে থেকে হঠাতে হবে। আর সেই ডাক দেবেন তৃণমূল সুপ্রিমো।