বাঁ পায়ের পাতা এবং গোড়ালিতে চিড় ধরেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, রয়েছে বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: কলকাতা এসএসকেএম হাসপাতালের ভিআইপি কেবিনে ভর্তি রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, তাঁর বাঁ পায়ের পাতায় এবং গোড়ালিতে চিড় ধরেছে। বাঁ পায়ের পেশিতেও চোট লেগেছে বলে জানা গেছে। গতকাল রাতেই এমআরআই এরপর টেম্পোরারি প্লাস্টার করা হয়েছে তাঁর পায়ে। শুরু করা হয়েছে অ্যান্টিবায়োটিক। জানা গেছে পায়ের ফোলা ভাব কমলে আজ প্লাস্টার করা হতে পারে। বাপ্পা ছাড়াও তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনুই, ডানকাঁধ এবং ঘাড়ে চোট লেগেছে। রাতে মুখ্যমন্ত্রীকে ব্যথা নিরাময়ের জন্য ওষুধ দেওয়া হয়। তবে বুকে ব্যথা এবং শ্বাসকষ্টের কারণ অনুসন্ধান করতে আজ আবার ইসিজি এবং সিটি স্ক্যান করা হবে বলে জানা গেছে হাসপাতাল সূত্রে। করা হতে পারে ইকো। এছাড়া রক্তের একাধিক রুটিন পরীক্ষা করা হবে। আপাতত ৪৮ থেকে ৭২ ঘন্টা পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চিকিৎসকরা। মুখ্যমন্ত্রী চিকিৎসার জন্য ৯ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। এই মেডিক্যাল বোর্ডের রয়েছেন এসএসকেএমের অধিকর্তা মণিময় বন্দ্যোপাধ্যায় সহ তিনজন বিভাগীয় প্রধান এবং অর্থোপেডিক, নিউরো সার্জারি, নিউরো মেডিসিন, জেনারেল সার্জারি, কার্ডিওলজি, এন্ডোক্রিনোলজি, জেনারেল মেডিসিন এবং অ্যানাস্থেশিয়া বিভাগের পাঁচজন বিশেষজ্ঞ।

বুধবার সন্ধ্যেবেলা নন্দীগ্রামের রানিচকে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যোগদান করে ফেরার সময় আঘাত প্রাপ্ত হয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই অনুষ্ঠান থেকে ফেরার সময় গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে মানুষের সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। নতুন লোকটাকে ঘিরে দাঁড়িয়ে ছিল। ওই সময় আচমকাই চার-পাঁচজন তাঁকে ধাক্কা মারে বলে অভিযোগ করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, ধাক্কার জেড়ে দরজা বন্ধ হয়ে মুখ থুবরে পড়েন তিনি। বাঁ পায়ে গুরুতর চোট পান মুখ্যমন্ত্রী। এই ঘটনার পরে দিনের সমস্ত কর্মসূচি বাতিল করে তাঁকে গ্রিন করিডোর তৈরি করে নিয়ে আসা হয় এসএসকেএম হাসপাতালে। ভর্তি করা হয় তৃণমূল সুপ্রিমোকে।