হিন্দি বা ইংরেজি ছাড়া অন্য ভাষায় কথা বললে শাস্তি, নির্দেশ দিল দিল্লির সরকারি হাসপাতাল

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: হাসপাতালে নার্সরা নিজেদের মাতৃভাষায় নয় বরং তাদেরকে কথা বলতে হবে হিন্দি বা ইংরেজি ভাষাতেই। না বললে শাস্তি। দিল্লির গোবিন্দ বল্লভ পন্থ হাসপাতালে এমনই একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। সরকারি হাসপাতাল এ এমন নির্দেশিকা জারি হওয়া নিয়ে তীব্র বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। এই ঘটনাকে কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী, শশী থারুররা “মাতৃভাষার ওপর আক্রমণ” হিসেবে ব্যাখ্যা করেছেন।

এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী একটি টুইট করে লিখেছেন,”মালয়ালম আর পাঁচটা ভারতীয় ভাষার মতোই একটি ভাষা। দয়া করে ভাষা বৈষম্য বন্ধ করুন।”

অন্যদিকে শশী থারুর নিজের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল এই ঘটনা প্রসঙ্গে লিখেছেন,”ভারতের মতো গণতান্ত্রিক দেশে এ ভাবে সরকারি প্রতিষ্ঠান নার্সদের বলছে তাঁদের মাতৃভাষায় কথা না বলতে। এটি গ্রহণযোগ্য নয়। এটি মানবাধিকারের লঙ্ঘন।”

যদিও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, কয়েকদিন আগে কিছু নার্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা পড়ে। অভিযোগগুলিতে মূলত বলা হয়েছে, নার্সদের মালায়ালাম ভাষাতে কথা বলায় অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে সাধারন রোগী এবং তাদের পরিবারের মানুষদের। এরপরই রোগীদের স্বার্থে হিন্দি ও ইংরেজিতে কথা বলার নির্দেশ দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। একই সাথে হাসপাতালে তরফ থেকে বলা হয়েছে এই নির্দেশ যদি কেউ অমান্য করে তাহলে তাঁকে কড়ার শাস্তি দেওয়া হবে।