চাপে পড়ে পদ থেকে ইস্তফা দিলেন উত্তরাখণ্ডের মুখ‍্যমন্ত্রী তিরথ সিং রাওয়াত

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: গত কয়েকদিন ধরেই তিরথ সিং রাওয়াতকে নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। উত্তরাখন্ডের মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে তাঁকে সম্ভবত সরিয়ে দেওয়া হবে বলেও গুঞ্জন তৈরি হয় সে রাজ্যে।

ইস্তফা যে দিতে চলেছেন, তা কার্যত নিশ্চিত ছিল। কখন দেবেন, তা নিয়ে ধন্দ ছিল। শেষপর্যন্ত যাবতীয় জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শুক্রবার রাতে রাজ্যপালে বেবি রানি মৌর্যের কাছে ইস্তফাপত্র জমা দিলেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী তিরথ সিং রাওয়াত। যিনি চার মাসও মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সিতে থাকলেন না।

নতুন করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন তা চূড়ান্ত করতে আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে বসবেন সে রাজ্যের বিজেপি বিধায়করা। ভার্চুয়ালের মাধ্যমে এই বৈঠকে থাকতে পারেন অমিত শাহ, নাড্ডারাও। সেখানেই চূড়ান্ত হতে পারে আগামী মুখ্যমন্ত্রী প্রার্থী।

তাঁর একের পর এক মন্তব্যে বারবার অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে বিজেপিকে। শুধু তাই নয়, সে রাজ্যে তাঁর ইমেজ খুব একটা ভালো নয়।
ভোটে না জিতেও মূখ্যমন্ত্রী পদে বসানো হয়েছিল তাকে। নিয়ম অনুযায়ী ছয় মাসের মধ্যে জিতে আসতে হবে। আগামী ১০ সেপ্টেম্বর উপ নির্বাচন রয়েছে।

উত্তরাখন্ডের দুটি কেন্দ্রে উপনির্বাচন হবে। ওই দুটি কেন্দ্র থেকে তিরথ সিং রাওয়াতের জিতে আসার সম্ভবনা নেই বলে দেখছে সবাই। অন্যদিকে তিরথ সিং রাওয়াতের পছন্দের আসনে এই মুহূর্তে উপ নির্বাচন হবে না। ফলে চাপ বাড়তে পারে। আর সেই কারণে আগেভাগে তিরথ সিং রাওয়াতকে সরিয়ে দিল বিজেপি।

অন্যদিকে রাওয়াতের আগের মুখ্যমন্ত্রী এর বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতি এবং স্বজনপোষণের অভিযোগ ওঠায় তাঁকে সরিয়ে দিয়েছিল কেন্দ্রের ও রাজ্যের শাসকদল , এই অবস্থায় বিজেপি চাইছে নতুন কোনও ভালো মুখ। যা দলের ইমেজকে তুলে আনতে সাহায্য করবে।