পূজোতে টাকা দিলেও ঈদ বা মহরমে নয় কেন? মমতার বিরুদ্ধে বিভাজনের রাজনীতির অভিযোগ অধীর চৌধুরীর

নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: কেন্দ্রের নয়া কৃষি আইন, এনআরসি ও সিএএ’র বিরুদ্ধে জনসভায় সামিল হলেন কংগ্রেস সাংসদ তথা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। সোমবার সাগড়দিঘির বিডিও অফিস মোড়ে এক জনসভায় সামিল হয়ে তিনি কেন্দ্রের মোদী সরকার ও তৃণমূল সরকারকে তীব্র ভাষায় আক্রমন করেন। এদিনের সভায় মহুকুমা সভাপতি হাসানুজ্জামান বাপ্পা, বীরভূমের বিধায়ক মিল্টন রশিদ সহ অন্যান্য বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় সাধারণ মানুষের উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো।

এদিন সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে অধীর চৌধুরী শুভেন্দু অধিকারীর দলত্যাগ ইস্যু নিয়ে বলেন, যা হবার তাই হচ্ছে, তৃণমূল থাকবে না, খন্ড বিখন্ড- চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে যাবে। পাশাপাশি আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কোনো কারচুপি করতে পারবে না বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি। পাশাপাশি জনসভায় বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিভাজনের রাজনীতির অভিযোগ করেন অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, মুসলমানরা গরিব হতে পারে মিসকিন নয়। তারা কখনো ইমামভাতা চাইনি, ভোট ব্যাঙ্কের জন্য দিয়ে তা নিয়ে রাজনীতি করছেন আপনি। পাশাপাশি পূজোতে টাকা নেওয়া প্রসঙ্গে তিনি হলেন, বাংলায় কি একটাই উৎসব? পূজোতে টাকা দিলেও ঈদ বা মহরমে নয় কেন?