খবর পেলেই বাড়িতে পৌঁছে যাচ্ছে অক্সিজেন ওষুধ খাবার, ফরাক্কায় মানুষের সেবায় রেড ভলেন্টিয়ার্স

বেলাল মোমিন, টিডিএন বাংলা, ফরাক্কা: করোনাকালে বামেদের যুব সংগঠন আগা গোড়ায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু নির্বাচনে তারা ধরাশায়ী হওয়ার পর অনেকেই ভেবেছিলেন তাদের আর পাত্তা মিলবে না। কিন্তু ভোটের ফলে হতাশ হলেও মানুষের পাশে দাঁড়াতে দেরি করেনি তারা। মহামারীর মধ্যে রেড ভলেন্টিয়ার এর নামে রাজ্যজুড়ে তাদের সংগঠন করোনা আক্রান্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে। পৌঁছে দিয়েছে অক্সিজেন সিলিন্ডার থেকে ওষুধপত্র।

রাজ্যের অন্যান্য প্রান্তের মত ফরাক্কাতেও রেড ভলেন্টিয়ার্স তাদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। ফরাক্কা রেড ভলেন্টিয়ার্স টিম এই মহামারীর পরিস্থিতিতে বিভিন্ন ধরনের জনসেবামূলক কাজ করে চলেছে। গত ২৪ শে মে তারা ওই কাজের সঙ্গে যোগ করেন ‘রেড ভলেন্টিয়ার্স ক্যান্টিন’। ফরাক্কা রেড ভলেন্টিয়ার্স ক্যান্টিনে সদস্যরা প্রতিদিন প্রায় ১৩০-১৫০ জন গরিব অসহায় দুস্থদের কাছে খাবার পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। শুধু এলাকার মানুষদের নয় ফরাক্কার রেড ভলেন্টিয়ার্স ক্যান্টিনের সদস্যরা খাবার পৌঁছে দেন পার্শ্ববর্তী স্টেশনের গরিব মানুষদের এবং দূর দূরান্ত থেকে আসা বিভিন্ন ট্রেনের যাত্রীদের।


রেড ভলেন্টিয়ার্স এর সম্পাদক হিমাংশু শেখর সাহা, টিমের সদস্যরা রাহুল হালদার, মাসুদ সেখ, বিশ্বদিপ মণ্ডল, নুতফননেশা খাতুন – এই মহামারী সম্পর্কে সচেতনতা মূলক ব্যাবস্থা গ্রহণ করার পরামর্শ দেন। টিমের সদস্যরা ফরাক্কার বিভিন্ন অঞ্চলের স্কুল, স্বাস্থ্য কেন্দ্র, বিভিন্ন ব্যাংক, এটিএম, ধর্মীয় স্থান এমনকি অন্যান্য রাজনৈতিক দলের পার্টি অফিসও স্যানিটাইজার করা, সাধারণ মানুষদের মাস্ক বিতরণ করা, তাছাড়া করোনা আক্রান্তদের যে কোনো রকমের সাহায্য প্রয়োজন হলেই পৌঁছে যাচ্ছে তারা। সম্পাদক হিমাংশু শেখর সাহা আরও জানান-‘চড়া রোদ হোক কিংবা ভারী বৃষ্টি অথবা গভীর রাত, খবর পেলে অক্সিজেন সিলিন্ডার থেকে রোগীর জন্য ওষুধপত্র পৌছে দিচ্ছি প্রত্যন্ত গ্রামেও।’

ছাত্র-যুব দের রেড ভলেন্টিয়ার্স নামে সংগঠন সারা রাজ্যের মত নজর কেড়েছে ফরাক্কাতেও এটা বলার অপেক্ষা রাখে না। বাম ছাত্র যুবদের এই কর্মকাণ্ড থেকেই আবারো শূন্য থেকে শুরু করতে চাইছে বাম সংগঠনগুলি – এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।