খাদ্য চিকিৎসার অভাবে গাজায় বিপর্যস্ত জনজীবন, ভারত সরকারের সমালোচনা করে অবিলম্বে ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর 

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: গাজায় বেসামরিক ফিলিস্তিনিদের উপরে ইসরাইলের গণহত্যার প্রতিবাদ জানিয়ে এই যুদ্ধে ভারত সরকারের ভূমিকার কড়া সমালোচনা করে অবিলম্বে ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানালেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। সোশ্যাল মিডিয়া এক্স এ একটি পোস্ট করে তিনি বলেন, খাদ্য চিকিৎসার অভাবে গাজায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। সাময়ীক যুদ্ধবিরতির পর গাজায় আবারও তীব্র বোমা হামলা ও স্থল পথে হামলা শুরু করেছে ইসরাইল। এর প্রতিবাদ করে আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

প্রিয়াঙ্কা গান্ধী তাঁর ওই পোস্টে লিখেছেন, “গাজায় নির্দয় বোমা হামলা যুদ্ধবিরতির আগের চেয়েও বেশি বর্বরতার সাথে অব্যাহত রয়েছে। খাদ্য সরবরাহ দুষ্প্রাপ্য, চিকিৎসা সুবিধা ধ্বংস করা হয়েছে এবং মৌলিক সুযোগ-সুবিধা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। প্রায় ১০ হাজার শিশু, ৬০ জনেরও বেশি সাংবাদিক এবং শতাধিক চিকিৎসাকর্মী সহ ১৬ হাজারেরও বেশি নিরীহ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। একটা গোটা জাতি নিশ্চিহ্ন হয়ে যাচ্ছে। এরা আমাদের বাকিদের মতোই স্বপ্ন ও আশার মানুষ। আমাদের চোখের সামনেই তাদের নির্মম ভাবে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। কোথায় আমাদের মানবতা?”

আন্তর্জাতিক মঞ্চে ন্যায়বিচারের পক্ষে ভারতের ঐতিহ্যবাহী ইতিহাসের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে, প্রিয়াঙ্কা মনে করিয়ে দেন যে ভারত দক্ষিণ আফ্রিকায় বর্ণবাদের অবসানে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। ফিলিস্তিনিদের স্বাধীনতার সংগ্রামকে শুরু থেকেই অবিচল ভাবে সমর্থন জানিয়ে আসছে ভারতবর্ষ। গাজায় প্রকাশ্য গণহত্যা প্রত্যক্ষ করেও ভারত সরকারের এই নিষ্ক্রিয়তার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের একজন দায়িত্বশীল সদস্য হিসাবে ভারত সরকারকে যুদ্ধবিরতি সহজতর করার জন্য অবিলম্বে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

তাঁর কথায়, “ভারত সবসময় আন্তর্জাতিক মঞ্চে যা ন্যায় তার পক্ষে দাঁড়িয়েছে। আমরা দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদী শাসনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার জন্য লড়াই করেছি। আমরা ফিলিস্তিনে আমাদের ভাই ও বোনদের তাদের স্বাধীনতার জন্য দীর্ঘ সংগ্রামের শুরু থেকে সমর্থন করেছি। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সদস্য হিসাবে ভারতের কর্তব্য যা সঠিক তার পক্ষে দাঁড়ানো। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব যুদ্ধবিরতি নিশ্চিত করার জন্য আমাদের যথাসাধ্য করতে হবে।”

https://x.com/priyankagandhi/status/1732584914326073591?t=gXGsdZdgS8GDajmq1-gLNQ&s=08