জেইই পরীক্ষায় তৃতীয় দিনে ৮২.১৪% এবং দ্বিতীয় দিনে ৮১.০৮% ছাত্র-ছাত্রী পরীক্ষা দিয়েছেন; জানালেন শিক্ষা মন্ত্রী রমেশ পক্রিয়াল নিশঙ্ক

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: জেইই (মেন) পরীক্ষায় মোট রেজিস্টার্ড পরীক্ষার্থীদের মধ্যে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় দিনের পরীক্ষায় যথাক্রমে ৮১.০৮% এবং ৮২.১৪% ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করেছেন। বৃহস্পতিবার রাতে এমনই একটি তথ্য প্রকাশ করলেন কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রী ডক্টর রমেশ পক্রিয়াল নিশঙ্ক। একটি টুইট করে বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে, ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যতের কথা ভেবে তাদের সহযোগিতা করার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী লেখেন,”এই হল জেইই (মেন) পরীক্ষার তিনদিনের উপস্থিতির তালিকা। কোভিড ১৯ এর এই পরিস্থিতির মধ্যেও আত্মনির্ভর ভারতের এই যজ্ঞের এত জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করেছেন দেখে অভিভূত। ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যতের ওপর যাতে কোনো প্রভাব না পড়ে তা নিশ্চিত করতে তাদের সহযোগিতা করার জন্য আমি প্রত্যেক মুখ্যমন্ত্রীদের ধন্যবাদ জানাই।”

এই টুইটের সাথেই শিক্ষা মন্ত্রী রমেশ পক্রিয়াল প্রকাশ করেন জেইই পরীক্ষায় ছাত্রছাত্রীদের মোট উপস্থিতির একটি তালিকা। ওই তালিকায় দেখা যাচ্ছে যে, ১ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ মঙ্গলবার আর্কিটেকচারের জন্য আয়োজিত জেইই প্রবেশিকা পরীক্ষায় প্রথম দফার পরীক্ষার জন্য নাম নথিভুক্ত করেছিলেন মোট ৫৪,০৬২ জন ছাত্রছাত্রী এবং দ্বিতীয় দফার জন্য নাম নথিভুক্ত করেছিলেন মোট ৫৮,১৮৫ জন। যার মধ্যে প্রথম দফার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন ৩১,৬৩১ জন এবং দ্বিতীয় দফায় ২৯,৭৩৫ জন। অর্থাৎ প্রথম ও দ্বিতীয় দফা মিলে ওই দিনের পরীক্ষায় মত অংশগ্রহণ করেছেন ৫৪.৬৭% পরীক্ষার্থী।

দ্বিতীয় দিন, বুধবার,২ সেপ্টেম্বর বিই বা, বিটেক- এর জন্য হওয়া জেইইর পরীক্ষায় প্রথম দফার জন্য নথিভুক্ত হয়েছিলেন ৮৭,৬৮৩ জন পরীক্ষার্থী এবং দ্বিতীয় দফার জন্য নথিভুক্ত হোয়েছিলেন মোট ৮৬,৬৬৭ জন। যার মধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় দফার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন যথাক্রমে ৬৭,৬৪০ জন এবং ৭৩,৭৩২ জন। অর্থাৎ প্রথম ও দ্বিতীয় দফা মিলিয়ে দ্বিতীয় দিন মোট ৮১.০৮% পরীক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

তৃতীয় দিনে, অর্থাৎ আজ বৃহষ্পতিবার আয়োজিত বিই বা, বিটেক- এর জন্য হওয়া জেইইর পরীক্ষায় প্রথম দফার জন্য নথিভুক্ত হয়েছিলেন ৮৬,৫০৮ জন এবং দ্বিতীয় দফায় ৮৫,৪১৬ জন। যার মধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় দফার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন যথাক্রমে ৭০,৬০৪ জন এবং ৭০,৬১৬ জন। অর্থাৎ প্রথম ও দ্বিতীয় দফা মিলিয়ে দ্বিতীয় দিন মোট ৮২.১৪% পরীক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।