“হিন্দুত্ববাদের” ঘাঁটি অযোধ্যার গ্রামে পঞ্চায়েত প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হলেন একজন মুসলিম প্রার্থী

Pic : Collected From TOI Tweeter
Pic : Collected From TOI Tweeter

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: এ এক ঐতিহাসিক ঘটনা। উত্তর প্রদেশের অযোধ্যা, নাম শুনলেই প্রথমে মনে পড়ে রাম মন্দিরের কথা। সেই সঙ্গেই মাথায় আসে কট্টর “হিন্দুত্ববাদ”। অথচ সেই অযোধ্যারই এক গ্রামে পঞ্চায়েত প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হলেন গ্রামের একমাত্র মুসলিম পরিবারের সদস্য হাফিজ আজিমুদ্দিন। আর এই জয় কয়েকটি ভোটের ব্যবধানে নয় বরং বিশাল ব্যবধানে ৬ জন ধর্মীয় সংখ্যাগরিষ্ঠ প্রতিদ্বন্দ্বিকে হারিয়ে এক অনবদ্য নজির গড়েছেন হাফিজ আজিমুদ্দিন। এক অনবদ্য ভাতৃত্বের অপূর্ব নিদর্শন। মোট ৬০০ ভোটের মধ্যে একাই ২০০ ভর্তি নিরঙ্কুশ জয়লাভ করেছেন ওই মুসলিম প্রার্থী।

হাফিজ আজিমুদ্দিনের কাছে এই জয় গ্রামবাসীর কাছ থেকে পাওয়া ঈদের উপহার। তাঁর এই সাফল্যে সমস্ত কৃতিত্ব তিনি গ্রামের হিন্দু ভাইদেরকেই দিয়েছেন, যারা তাঁর ওপর ভরসা করেছেন।

গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের এই নির্বাচন আদতে একটি ছোট মাপের নির্বাচন হলেও এই নির্বাচন চোখে আঙ্গুল দিয়ে প্রমাণ করে, ‘হিন্দুত্ববাদের গড়’ অযোধ্যায় হিন্দু-মুসলিম ভোটব্যাঙ্ক পলিটিক্সের চিন্তাধারা কতটা অস্তিত্বশূন্য।