৪১ বছর পর অলিম্পিক্স হকিতে পদক ভারতের , জার্মানির বিরুদ্ধে পিছিয়ে থেকেও ঐতিহাসিক জয়

টিডিএন বাংলা ডেস্ক :  ৪১ বছর পর অলিম্পিক থেকে পদক জিতল ভারত। জার্মানির বিরুদ্ধে পিছিয়ে থাকা ম্যাচ জিতে টোকিও গেমস থেকে ব্রোঞ্জ অর্জন করতে সক্ষম হলেন মনপ্রীত সিংরা। ২ গোলে পিছিয়ে থেকেও দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন ঘটিয়ে ঐতিহাসিক জয় হাসিল করা ভারতীয় হকি দলে মুগ্ধ দেশ। ইতিহাস ছুঁতে পেরে আবেগতাড়িত মনপ্রীত সিংরা।

সেমিফাইনালে বেলজিয়ামের কাছে হারের পর হাতছাড়া হয় সোনা। কিন্তু তাতেও দমানো যায়নি শ্রীজেশদের। যার প্রমাণ পাওয়া গেল ব্রোঞ্জ পদকের ম্যাচে জার্মানির বিপক্ষে। একপ্রকার হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে জার্মানিকে পরাস্ত করল ভারত।

শুরু থেকেই আক্রমণ ও পাল্টা আক্রমণে ম্যাচ জমে ওঠে টোকিও অলিম্পিকের তৃতীয় স্থান নির্ধারক ম্যাচ। যদিও আক্রমণে ঝাঁঝ বেশি থাকে জার্মানির। খেলতে নেমে প্রথম ২ মিনিটেই ধাক্কা পেয়েছিল মনপ্রীতরা। শুরুতেই গোল করে ভারতকে চাপের মুখে রেখেছিল জার্মানি। এক সময় ১-৩ গোলে পিছিয়ে গিয়েছিল ভারত। কিন্তু দ্বিতীয় কোয়ার্টারেই ম্যাচে ফেরেন মনপ্রীতরা।

তৃতীয় কোয়ার্টারে পেনাল্টি পেয়ে গোল করতে ভুল করেননি রূপিন্দর পাল সিং। এরপরেই এগিয়ে যায় ভারত। সাত মিনিটের ব্যবধানে চারটি গোল করে পুরোপুরি খেলা ঘুরিয়ে দিলেন মনপ্রীত সিংরা। সেই হার না মানা মানসিকতার সৌজন্যে অলিম্পিক্সে ৪১ বছরের পদক খরা কাটল ভারতের।

১৯৮০ সালে অলিম্পিক থেকে শেষবার পদক জিততে সক্ষম হয়েছিল ভারত। সেবার সোনা এসেছিল ঘরে। ১৯৭২ সালের অলিম্পিকে শেষবার ব্রোঞ্জ জিতেছিল ভারতীয় হকি দল।

টুইট করে ভারতীয় হকি দলকে শুভেচ্ছাবার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, ”ঐতিহাসিক! আজকের দিন সকল ভারতীয়র মনে থাকবে।”

টোকিও অলিম্পিকে জার্মানিকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পদক জেতা ভারতের পুরুষ হকি দলের কৃতিত্বে গর্বিত হয়েছেন কোচ গ্রাহাম রেইড। যিনি দলের খেলোয়াড়দের লিডেন্ড বলে সম্বোধন করেছেন।

ক্রিকেট, ফুটবল নিয়ে মাতামাতির মাঝে প্রায় হারিয়ে যেতে বসা হকি যেন আবার প্রাণ ফিরে পেল শ্রীজেশ, রূপিন্দরদের হাত ধরে।