আমাদের মেয়েদের স্পর্শ করলেই তাঁদের একমাত্র শাস্তি হবে মৃত্যুদণ্ড; লাভ জিহাদ রুখতে হুঁশিয়ারি অসমের মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার

ছবি সৌজন্যে: হিমন্ত বিশ্ব শর্মার ফেসবুক পেজ

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: ২০২১ সালের মার্চ এপ্রিল মাসে আসনের বিধানসভা নির্বাচন। তার আগেই লাভ জিহাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার হুমকি দিলেন অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। তিনি বলেন, অসমের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি পুনর্নির্বাচিত হয়ে এলে লাভ জিহাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। লাভ জিহাদের বিরুদ্ধে কঠোর লড়াইয়ের বার্তা দিয়ে এদিন তিনি বলেন,”আমাদের মাটিতে লাভ জিহাদের বিরুদ্ধে কঠোর লড়াই শুরু হবে। অসমে কোনও ছেলে নিজের পরিচয় ও ধর্ম গোপন করে বিয়ে করলে অথবা আমাদের মেয়ে ও বোনদের সম্পর্কে কোনও খারাপ কথা বললে কঠোর শাস্তির মুখে পড়তে হবে।” এরপর এআইইউডিএফ  প্রধান বদ্রুদ্দিন আজমলের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ করে হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেন আজমলের সেনার চক্রান্তে বিজেপি নির্বাচনে পাঁচটি কেন্দ্রে আসন হারিয়েছে। তাই দ্বিতীয়বার আর বদ্রুদ্দিন আজমলের দলের ওপর ভরসা করবে না বিজেপি। শুধু তাই নয় আজমলের দলের ছেলেরা নিজেদের নাম-পরিচয় ভাঁড়িয়ে অসমের অনেক মেয়েকে প্রেমের জালে ফাঁসাচ্ছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন,”আমরা প্রতিজ্ঞা করেছি, আজমলের দলের কেউ আমাদের মেয়েদের স্পর্শ করলেই তাঁদের একমাত্র শাস্তি হবে মৃত্যুদণ্ড। বহু মুসলিম ছেলে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের পরিচয় গোপন করে অসমের মেয়েদের প্রেমের ফাঁদে ফেলছে। লাভ জিহাদ এখন অসমের মেয়েদের কাছে সব থেকে বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই সমস্যা আমাদের সমাধান করতে হবে। না হলে আগামী দিনে আরও বড় বিপদ আমাদের মেয়েদের জন্য অপেক্ষা করছে।” শুধু মহিলাদের ক্ষেত্রেই নয় হিমন্ত বিশ্ব শর্মা আর দাবি আজমলের দলের বিরুদ্ধে রুখে না দাঁড়ালে গোটা অসমের সংস্কৃতি এবং সভ্যতা কে বাঁচানো যাবে না। তাই নির্বাচনে বিজেপি পুনঃনির্বাচিত হয়ে না এলে আগামী ১৫ বছরে অসম আর বসবাসযোগ্য থাকবে না।