বাতিল আইটি আইনের ৬৬এ ধারা কেন প্রয়োগ করা হচ্ছে? রাজ্যগুলির কাছে ‘সুপ্রিম’ জবাব তলব

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : সোশ্যাল মিডিয়ায় খোলামেলা মত প্রকাশকারীদের গ্রেফতারির ক্ষেত্রে কেন বাতিল তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৬ এ ধারা আরোপ করা হচ্ছে? জানতে চেয়ে সব রাজ্যকে নোটিশ পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট। সব রাজ্যকে আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে তাদের অবস্থান জানাতে হবে।

শীর্ষ আদালতের বিচারপতি রোহিন্টন এফ নরিম্যানের বেঞ্চ অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, সুপ্রিম কোর্ট ২০১৫ সালে এই আইনকে অসাংবিধানিক বলে ঘোষণা করে। তারপরেও দেখা যাচ্ছে, বিভিন্ন রাজ্যে সামাজিক মাধ্যমে মতপ্রকাশকারীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে এই অসাংবিধানিক আইন আরোপ করা হচ্ছে। কেন্দ্র ইতিমধ্যে জানিয়েছে, আইন-শৃঙ্খলা রাজ্য এক্তিয়ারভুক্ত। সুপ্রিম কোর্টে হলফনামা দাখিল করে জানিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় আপত্তিকর পোস্টের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্টকে গ্রেফতার, আটক, তদন্ত এবং বিচারপ্রক্রিয়া পুরোটাই রাজ্যের বিষয়। সুতরাং, এই ব্যাপারে তাদের করণীয় কিছুই নেই।

৬৬-এ ধারা অনুসারে, কোনও মতামত আপত্তিকর হলে সংশ্লিষ্টের শাস্তি হবে তিন বছরের জেল। ২০১৫ সালে সর্বোচ্চ আদালত এই আইনকে অসাংবিধানিক বলে জানায়। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, বেশিরভাগ রাজ্যে এখনও ওই অসাংবিধানিক আইন আরোপ করা হচ্ছে চলেছে। আর তাতে সর্বোচ্চ আদালত রীতিমতো অসন্তুষ্ট।